খুলনা জেলা মাদকদ্রব্য’র বিশেষ অভিযানে ইয়াবা- গাজাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ী আটক 

0
764

নিজস্ব প্রতিবেদক:

খুলনা জেলা মাদকদ্রব্য’র নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের বিশেষ অভিযানে ইয়াবা, গাজা ও গাজার গাছ, বিদেশী মদসহ তিন জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে। বুধবার দিন ব্যাপী উক্ত সংস্থার গোয়েন্দা শাখা ও ‘ক’ ও ‘খ’ সার্কেলের বিশেষ অভিযানে হরিনটানা, রূপসা, দিঘলিয়া ও খালিশপুর থানাধীন পৃথক অভিযান চালিয়ে উক্ত মাদকগুলো জব্দ করেন। আটকৃতরা হচ্ছেন মোঃ মারুফ বিল্লা (৩১), জান্নাতুল ফেরদৌস (৩২) ও মো: জাহাঙ্গীর হাওলাদার (৪৫)। এ সময় গাজা বিক্রেতা দুই মাদক ব্যবসায়ী মোঃ কবির গাজী ওরফে কালা কবির (৪২) এবং শেখ গোলাম রহমান কচি (৪৫) পালিয়ে যেতে সক্ষমহন।
জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় সূত্র মতে, সংস্থার উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামানের তত্ত্বাবধায়নে বুধবার দিন ব্যাপী বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়। গোয়েন্দা শাখার পরিদর্শক মোঃ পারভিন আক্তারের নেতৃত্বে সকাল সাড়ে ৮টায় লবনচরা থানাধীন হরিনটানা উত্তরপাড়া এলাকায় অভিযান চালান। এ সময় ওই এলাকার বাসিন্দা আব্দুল মোমিন আকনের পুত্র মোঃ মারুফ বিল্লাকে ৫৫ পিস ইয়াবাসহ আটক করেন।
অপরদিকে রূপসা রাজাপুরে ‘ক’ সার্কেলের পরিদর্শক মোঃ আহসান হাবিবের নেতৃত্বে একটি অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় ওই এলাকার বাসিন্দা মোঃ মান্নান হাওলাদারের (৪৫) পুত্র ৫০ গ্রাম গাজাসহ আটক করেন।

 

অপর অভিযানে ‘খ’ সার্কেলের পরিদর্শক মোঃ সাইফুর রহমনা রানার নেতৃত্বে নগরীর খালিশপুর ৭নং ওয়ার্ড এলাকায় অভিযান চালান। এ সময় ওই এলাকার বাসিন্দা মৃত মোহাম্মদ গাজী শেখের পুত্র মোঃ কবির গাজী ওরফে কালা কবির ও শেখ মকবুল হোসেনের পুত্র  শেখ কালাম কচি বাড়িতে গাজা গাছ উদ্ধার করা হয়। অভিযানে টের পেয়ে আসামিরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। অন্যদিকে ‘খ’ সার্কেলের পরিদর্শক মোঃ সাইফুর রহমান রানার নেতৃত্বে দিঘলিয়া উপজেলা পশ্চিম দেয়ানায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় ওই এলাকার বাসিন্দা মোঃ জামির শেখের স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসকে আটক করেন। এ সময় সে সুকৌশলে তার কাছে রক্ষিত ইয়াবাগুলো বাথরুমে ফেলে দেন। এ সময় তার বাড়ি থেকে দুই বোতল বিদেশী মদের খালি বোতল ও মাদক খাওয়ার সরঞ্জাম জব্দ করা হয়। পরবর্তীতে দিঘলিয়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শম্পা কুন্ডু ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় আসামি জান্নাতুল ফেরদৌস তার কাছে মাদক রাখার স্বীকারোক্তি দিলে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।
এ ব্যাপারে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় এর উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামান এ প্রতিবেদককে বলেন, ২৭ মার্চ থেকে ২৯ মার্চ খুলনা জেলায় মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। এর পাশাপাশি নিয়মিত অভিযান চলমান থাকবে। দিনব্যাপী নগরীর বিভিন্ন এলাকাসহ উপজেলাগুলোতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। অভিযানে খুলনা বিভাগীয় মাদকদ্রব্য’র অতিরিক্ত পরিচালক মোঃ আবুল হোসেন অভিযানগুলো তদারকি করেন।