খুলনা অঞ্চলে আয়কর মেলা থেকে আয় ৫৭ কোটি ৬৭ লাখ টাকা

0
490

নিজস্ব প্রতিবেদক:
খুলনার আয়কর মেলার সাত দিনে মেলা থেকে ৫৭ কোটি ৬৭ লাখ ৪০ হাজার ৮৮৩ টাকা রাজস্ব আদায় হয়েছে। এই সাতদিনে মেলা থেকে সেবা নিয়েছেন ৯৭ হাজার ৫৬৫ জন। রিটার্ন দাখিল করেছেন ৫২ হাজার ২২৭ জন। নতুন টিআইএন গ্রহণ করেছেন ২ হাজার ৪০৭ জন। বুধবার রাতে খুলনা কর অঞ্চলের কর কমিশনার প্রশান্ত কুমার রায় এ তথ্য জানিয়েছেন।
তিনি আরও জানান, আয়কর মেলার শেষ দিন গতকাল বুধবার খুলনা অঞ্চলে ৮ কোটি ৭০ লাখ ৩৫ হাজার ৬০৬ টাকা আয়কর জমা পড়েছে। এদিন মেলা থেকে সেবা নিয়েছেন ১৫ হাজার ৩৬৪ জন। রিটার্ন দাখিল করেছেন ৯ হাজার ৭৮৮ জন। নতুন টিআইএন গ্রহণ করেছেন ৩৪২ জন।
আয়কর মেলার ষষ্ঠ দিন মঙ্গলবার খুলনা অঞ্চলে ৩২ কোটি ২৩ লাখ ৫৯ হাজার ৭৪৪ টাকা আয়কর জমা পড়েছে। এদিন মেলা থেকে সেবা নিয়েছেন ১৬ হাজার ১৯৩ জন। রিটার্ন দাখিল করেছেন ১০ হাজার ৩২৭ জন। নতুন টিআইএন নিয়েছেন ২৭৩ জন।
আয়কর মেলার পঞ্চম দিন সোমবার খুলনা কর অঞ্চলে ৫ কোটি ২৮ লাখ ৬০ হাজার ৫৫১ টাকা আয়কর জমা পড়েছে। এদিন মেলা থেকে সেবা নিয়েছেন ১৮ হাজার ২৮০জন। রিটার্ন দাখিল করেছেন ১২ হাজার ৯৫ জন। নতুন টিআইএন গ্রহণ করেছেন ৬৮০ জন।
আয়কর মেলার চতুর্থ দিন রবিবার খুলনা অঞ্চলে ৪ কোটি ২৯ লাখ ৪৪ হাজার ৫০৯ টাকা আয়কর জমা পড়েছে। এদিন মেলা থেকে সেবা নিয়েছেন ১৭ হাজার ৮২০ জন। রিটার্ন দাখিল করেছেন ৮ হাজার ৬৬৫ জন। নতুন টিআইএন গ্রহণ করেছেন ৬০৩ জন।
আয়কর মেলার তৃতীয় দিন শনিবার খুলনা অঞ্চলে ২ কোটি ৯০ লাখ ৫৫ হাজার ৫২৪ টাকা আয়কর জমা পড়েছে। এদিন মেলা থেকে সেবা গ্রহণ করেছেন ১৭ হাজার ২০২ জন। রিটার্ন দাখিল করেছেন ৬ হাজার ৩৮০ জন। নতুন টিআইএন নিয়েছেন ২৭২ জন।
আয়কর মেলার দ্বিতীয় দিনে শুক্রবার খুলনা অঞ্চলে ২ কোটি ৪৮ লাখ ৮৮ হাজার ৮৭৯ টাকা আয়কর জমা পড়েছে। এদিন মেলা থেকে সেবা গ্রহণ করেছেন ১০ হাজার ৬৯৮ জন। রিটার্ন দাখিল করেছেন ৩ হাজার ৬৯১ জন। নতুন টিআইএন নিয়েছেন ১০৪ জন।
আয়কর মেলার প্রথম দিনে বৃহস্পতিবার ১ কোটি ৭৫ লাখ ৯৬ হাজার ৭০ টাকা কর আদায় হয়েছে। আয়কর বিবরণী বা রিটার্ন জমা দিয়েছেন ১ হাজার ২৮০ করদাতা। নতুন ই-টিআইএন গ্রহণ করেছেন ১৩৩ জন। আর কর সংক্রান্ত সেবা নিয়েছেন ২ হাজার ৮ জন।
কর কমিশনার প্রশান্ত কুমার রায় জানান, ২০১৮ সালের থেকে চলতি বছর মেলা থেকে সাড়ে ১৫ কোটি টাকা বেশি রাজস্ব আদায় হয়েছে। গত আয়কর মেলা থেকে ৪২ কোটি ৮ লাখ ১৪ হাজার ২৪৬ টাকা রাজস্ব আদায় হয়। ওইসময় মেলা থেকে সেবা নেন ৭৭ হাজার ২৭ জন। রিটার্ন দাখিল করেন ৪৩ হাজার ৪৮৩ জন। নতুন টিআইএন গ্রহণ করেছিলেন ১ হাজার ৪৫৩ জন।