খুলনায় ২৯ কোটি টাকার সর্বোচ্চ রাজস্ব আদায়

0
813

বিমল সাহা :
সফলভাবে শেষ হয়েছে খুলনার সাত দিন ব্যাপী আয়কর মেলা। চলতি সনে আয়কর মেলায় ২৯ কোটি ১৪ লাখ ৫৫ হাজার ৬৬৮ টাকা। যা বিগত সাত বছরের তুলনায় খুলনা কর অঞ্চলের সর্বোচ্চ আদায়। আর মেলায় আয়কর দেওয়ার সবধরণের সুবিধা পাওয়া সন্তোষ প্রকাশ করেছে করদাতারা।
এবছর মেলায় সেবা গ্রহিতার সংখ্যা ছিল ৫৪ হাজার ৫৭০ জন। সার্বজনীন স্বনির্ধারনী পদ্ধতিতে আয়কর রিটার্না দাখিল করেছেন ২৭ হাজার ৮শ ১২ জন। নতুন টিআইএন নিবন্ধন করেছেন ১ হাজার ১শ ৯৬ জন। পুরাতন টিআইএন রি-রেজিস্ট্রেশন করেছে মাত্র ৬ জন। মঙ্গলবার মেলা শেষে এসব তথ্য দেন উপ-কর কমিশনার আবু নসর মোঃ মাহাবুবুজ্জামান।
এদিকে মেলার শেষ দিনে সকাল থেকে রাত অবধি উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। আয়কর ও রিটার্ন জমা শেষে প্রশান্তি নিয়ে ফিরে যাচ্ছেন করদাতারা। সকলেই সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। মেলায় তাদের রিটার্ন জমা দিতে পেরে কর কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন।
প্রকৌশলী মাহাবুব আলম, শিক্ষক হাবিবুর রহমান, স্টাফ নার্স রোজিনা খাতুন, ব্যবসায়ী রবিউল ইসলাম মঞ্জুসহ একাধিক করদাতা রিটার্ন দাখিল শেষে তাদের মতামত জানিয়েছে দৈনিক প্রবাহে। তারা মনে করেন প্রতিবছর আয়কর মেলায় উৎসব মুখর পরিবেশে আয়কর জমা দেওয়ার এমন সুযোগ মানুষের মাঝে কর ভীতি দূর করেছে। সেই সাথে দেশের রাজস্ব প্রদানে প্রতি বছর মানুষকে সচেতন করে তুলছে আয়কর মেলা।
এদিকে মঙ্গলবার সকালে আয়কর মেলা পরিদর্শন করেন খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ও অতিরিক্ত সচিব লোকমান হোসেন মিয়া। মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন শেষে সন্তোষ প্রকাশ করে তিনি বলেন, প্রতি বছর আয়কর মেলা হওয়ায় মানুষের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধি পেয়েছে। সকলেই আগ্রহ ভরে তাদের আয়কর দিতে পারছে। এজন্য তিনি আয়কর কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
মেলা সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে মনে করেন খুলনা কর কমিশনার মোঃ ইকবাল হোসেন। তিনি প্রবাহকে বলেন, বিগত সময়ের তুলনায় আমরা এবছর মেলা বেশি সফলতা পেয়েছে। এবছর মেলায় রাজস্ব আদায়ের পরিমান বেড়েছে। সেই সাথে রিটার্ন দাখিল ও নতুন করদাতা নিবন্ধনের সংখ্যাও বেড়েছে। এজন্য তিনি করদাতা, আয়কর কর্মকর্তা-কর্মচারী, সাংবাদিক ও আইনজীবীদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।