খুলনায় ১১ দিন ধরে ব্যবসায়ী নিখোঁজ, উদ্ধারের দাবি স্ত্রীর

0
506

নিজস্ব প্রতিবেদক : খুলনায় ১১ দিন ধরে নিখোঁজ ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান মিজানকে উদ্ধারের দাবি জানিয়েছেন তার স্ত্রী মোসাম্মৎ বেবী বেগম। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় খুলনা প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি এ দাবি করেন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, তার স্বামী মিজানুর রহমান মিজান খালিশপুর বিআইডিসি রোডের পাওয়ার হাউজ লেনে গার্মেন্টস এর ব্যবসা করেন। গত ২ ডিসেম্বর তিনি নিখোঁজ হয়। ওই দিন আনুমানিক সন্ধ্যা ৬টার দিকে মোবাইল ফোনে কথা বলেন তারা। তখন তিনি রাত ১০টায় দোকান বন্ধ করে বাসায় আসার কথা জানান। এরপর রাত ১১টায় সে বাসায় না আসলে মোবাইল ফোনে কল দিলে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরের দিন ৩ ডিসেম্বর খালিশপুরে গিয়ে তার দোকান বন্ধ দেখতে পান এবং বিভিন্নস্থানে খোঁজ করে কোন সন্ধান না পেয়ে খালিশপুর থানায় জিডি করেন। জিডি নং ১২৫, তারিখ ০৩/১২-১৮ইং। পরবর্তীতে বিভিন্ন সময়ে থানায় গিয়ে উদ্ধারের দাবি জানান এবং একটি মামলা করার জন্য বলেন। কিন্তু পুলিশের পক্ষ থেকে ধৈর্য্য ধরে খোঁজ-খবর নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। এছাড়া পুলিশও উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছে বলে জানানো হয়। কিন্তু ১১ দিনেও নিখোঁজ ব্যবসায়ীর সন্ধান মেলেনি।
তিনি আরও বলেন, তার স্বামী নিখোঁজ হওয়ার পেছনে জা নিলুফা, ভাসুর বাহাদুর, বোনাই শামীম, দোকান কর্মচারী সাকিব ও সুমনের যোগসাজস থাকতে পারে। কারণ তার জা নিলুফা এর সাথে তার বোনাই শামীম এর পরকীয়া ছিলো। তিন বছর আগে অবৈধ সম্পর্কটি ধরা পড়লে নিলুফা ও শামীম তাদের উপর রেগে ছিলো। ওই ঘটনার তারা দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়।
তিনি বলেন, ‘সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আমি আমার স্বামীর হঠাৎ রহস্যজনক নিখোঁজ হওয়ার তদন্ত চাই। আমাদের একমাত্র সন্তান শিশু মাফিম হাসান বাবার জন্য দিনরাত কান্নাকাটি করছে। সে তার বাবাকে ফিরিয়ে দিতে আইনশৃংখলা বাহিনীর উর্দ্ধতন কর্মকর্তার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে।’