খুলনায় মাসিক জেলা পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসী কনফারেন্স অনুষ্ঠিত

0
533

বিজ্ঞপ্তি : ক্রিমিনাল রুলস এন্ড অর্ডারস ২০০৯, ভলিউম ১ এর ৪৮১ নং রুল মোতাবেক খুলনা জেলার মাসিক পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসী কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বেলা ৩টায় চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসী সম্মেলন কক্ষে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা ও দায়রা জজ মশিউর রহমান চৌধুরী।
চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (ভারপ্রাপ্ত) মো. আবুল বাশার মিয়া’র সভপতিত্বে ও জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইসরাত জাহান এর পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ, পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আনিছুর রহমান, এডিএম মো. ইউসুফ আলী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. বদিউজ্জামান, জেল সুপার মো. কামরুল ইসলাম, খুলনা সদর হাসপাতালের আরএমও ডা. অঞ্জন কুমুর চক্রবর্তী, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমুর দালাল, মুহাম্মদ নাছির উদ্দীন ফারাজী, নয়ন বিশ^াস, বুলবুল আহমেদ, ম্যাজিস্ট্রেট এসএম আশিকুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জি এম আবুল কালাম আজাদ, মো. সজিব খান, মো. নুর আলম সিদ্দিকী, সেখ মো. আব্দুল্লা বিন কালাম, আরএমও ডা. অঞ্জন কুমার চক্রবর্তী, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. আতিয়ার রহমান, জেলা সমাজসেবার প্রবেশনাল অফিসার কাজী ফাহিমা মুন্নী, সুন্দরবন পশ্চিম বিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক এস এম শোয়াইব খান, নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মাহমুদুল হক, এএসপি (সিআইডি) মো. আমিনুর রহমান, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, বটিয়াঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাহবুবুর রহমান, তেরখাদা থানার মো. খালেকুজ্জামান, কয়রা থানার তারক বিশ^াস, দাকোপ থানার মো. মোশারেফ হোসেন, দিঘলিয়া থানার মানস রঞ্জন দাস, রূপসা থানার মো. রফিকুল ইসলাম, পাইকগাছা থানার মো. আমিনুল ইসলাম, ওসি তদন্ত প্রবীন বিশ^াস, ডুমুরিয়া থানার মো. হাবিল হোসেন, ফুলতলা থানার মো. মনিরুল ইসলাম, কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক মো. ইনামুল হক (পিপিএম), ডিবি ইন্সপেক্টর তোফায়েল আহমেদ, কোর্ট ইন্সপেক্টর জিএম নজরুল ইসলাম। সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের পেশকার দেবাশীষ চক্রবর্তী।
সম্মেলনে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে আশু করণীয়, পেন্ডিং প্রসেস জারীর ক্ষেত্রে সমস্যা সমূহ চিহ্নিত ও দুরীকরণ, আদালতে সাক্ষী হাজির নিশ্চিতকরণ, সাক্ষীদের আদালতে আসা-যাওয়া কালীন নিরাপত্তা,অনুসন্ধান এবং তদন্তের ক্ষেত্রে ছোটখাটো সমস্যা দুরীকরণ, কারাগার থেকে বিচারাধীন মামলার আসামীদের সময়মত আদালতে হাজিরকরণ, ক্রোকি পরোয়ানা তামিল নিশ্চিতকরণ, আদালত অঙ্গন, বিচারক ও আদালতের অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ, মালখানা থেকে সময়মত আলামত হাজির করণ, সুষ্ঠু ফৌজদারী বিচার নিশ্চিত করনার্থে ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশের মধ্যে পারষ্পারিক সমন্বয় ও সহযোগিতা, মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য গৃহীতব্য পদক্ষেপ সমূহসহ বিভিন্ন বিষয় আলোচনা করা হয়।