খুলনায় মাদক বিরোধী অভিযানে পাঁচজন আটক, চারজনকে দণ্ড

0
408

নিজস্ব প্রতিবেদক : জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মাদক নির্মুলে ক্র্যাশ অপারেশনে চতুর্থ দিনে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ইয়াবা-গাজা ও মাদক বিক্রিত ৬৬ হাজার ৫শ’ টাকাসহ ৫ মাদক বিক্রেতাকে আটক করেছেন। আটককৃতরা হচ্ছেন নিয়াফুল মোল্লা ওরফে লাল (৩০), রনি গাজী (২৫), জাকারিয়া হোসেন (৩০), আব্দুল্লাহ আল মামুন ও তার স্ত্রী শ্রাবনী (৩৪)। এর মধ্যে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে আটককৃতদের মধ্যে নিয়াফুল মোল্লা ওরফে লাল ও রনি গাজীকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা এবং আব্দুল্লাহ আল মামুন ও তার স্ত্রী শ্রাবনীকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মিজানুর রহমান ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন। রবিবার সকাল থেকে উপজেলা তেরখাদা ও খুলনাথানাধীন বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন।
জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সূত্র মতে, সংস্থার উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামানের তত্ত্বাবধানে ‘খ; সার্কেলের পরিদর্শক মোঃ সাইফুর রহমান রানার নেতৃত্বে একটি টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তেরখাদা উপজেলায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় নিয়াফুল মোল্লা ওরফে লালকে ২৫ গ্রাম গাজাসহ আটক করেন। সেই ওই এলাকার বাসিন্দা শরিফ মোল্লার পুত্র। অপরদিকে গোয়েন্দা শাখার পরিদর্শক পারভীন আক্তার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নড়াইল উপজেলা নরাগাতি এলাকার বাসিন্দা মৃত হাসেম শেখের পুত্র শেখ বদিউজ্জামান ওরফে বদরের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় তার বাড়ি থেকে ৭৫ পিস ইয়াবা ও মাদক বিক্রির ৬৬ হাজার ৫শ’ টাকাসহ উদ্বার করে। অভিযানের টের পেয়ে বদিউজ্জামান ওরফে বদর পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে তার নাম উল্লেখ করে নড়াইল থানায় মাদকের আইনে মামলা দায়ের করেন।
এছাড়া নগরীর খুলনা থানাধীন টুটপাড়া ও ইস্ট লিংক রোডে ‘ক’ সার্কেলের পরিদশর্ক হাওলাদার মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টিম অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় টুটপাড়া এলাকার বাসিন্দা মোসলেম গাজীর পুত্র রনি গাজী ও জাকির হোসেনকে মাদকসহ আটক করেন। অপরদিকে টুটপাড়া ইস্ট লিংকে অভিযানে মৃত তাজুল ইসলামের পুত্র আব্দুল্লাহ আল মামুন ও মামুনের স্ত্রী শ্রাবনীকে ইয়াবা-গাজাসহ আটক করেন। পরবর্তীতে ভ্রাম্যমানা জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মিজানুর রহমান আটককৃতদের মধ্যে ২ জনকে জরিমানা ও স্বামী-স্ত্রীকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। অভিযানে সময় উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক মোঃ আবুল হোসেন, সহকারি পরিচালক শিরিন আক্তার, পরিদর্শক আব্দুল্লাহ আল মামুন, পরিদর্শক কে এ এম হানিফ উপ-পরিদর্শক মোসাদ্দেক হোসেনসহ এপিবিএন সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।