খুলনায় ভোটের প্রচার স্থগিতের ঘোষণা বিএনপি প্রার্থী মঞ্জুর

0
387

অনলাইন ডেস্কঃ
খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু দলীয় নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে নির্বাচনী প্রচার কার্যক্রম স্থগিত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে খুলনা শহরের মিয়া পাড়া রোডে নিজের বাসায় সাংবাদিকদের সামনে এই ঘোষণা দেন।

খুলনা মহানগর বিএনপির সভাপতি মঞ্জু বলেন, বুধবার রাত থেকে ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে শহরের বিভিন্ন জায়গা থেকে তার ভোটের প্রচারে যুক্ত ১৯ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে। আরও অনেকের বাড়িতে তল্লাশি করা হয়েছে, ফলে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে।

“এ পরিস্থিতিতে নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে নির্বাচনী প্রচারের কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছে।”

দুপুরে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়ে বিস্তারিত বক্তব্য তুলে ধরা হবে বলে জানান ধানের শীষের এই প্রার্থী।

আগামী ১৫ মে এ নির্বাচন সামনে রেখে তফসিল ঘোষণার পর বিএনপির প্রার্থী মঞ্জুর পক্ষ থেকে ৯ দফা সুপারিশসহ একটি স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছিল রিটার্নিং অফিসারের কাছে। খুলনার পাঁচ থানার ওসিসহ ‘দলবাজ পুলিশ কর্মকর্তাদের’ বদলির আবেদন করা হয়েছিল সেখানে। নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবিও তার ছিল।

কিন্তু নির্বাচন কমিশন একটি সুপারিশও বাস্তবায়ন করেনি জানিয়ে সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে ভোটের পরিবেশ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন বিএনপির এই প্রার্থী।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীও গত ৩০ এপ্রিল ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন, গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচন সামনে রেখে ভোটারদের ‘ভয়-ভীতি দেখাতে’ বিরোধী নেতা-কর্মীদের ‘ঢালাওভাবে’ গ্রেপ্তার করা হচ্ছে।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, বিএনপির প্রার্থীর কর্মীরা মাঠে নামতে অনাগ্রহী হলে তার দায় অন্য কেউ নেবে না।