খুলনায় দুই হেভী ওয়েট মেয়র প্রার্থীকে ইসি’র শোকজ

0
399

নিজস্ব প্রতিবেদক: খুলনার আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রতিদিনেই নিত্য নতুন উত্তেজনার মাত্রা যোগ হচ্ছে।২৪ এপ্রিল প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রতিক বরাদ্ধ দিবে নির্বাচন কমিশন,
তার আগেই খুলনার রাজনীতির মাঠ গরম হচ্ছে প্রতিনিয়তই।তারি, ধারাবাহিতায় আজ দুই হেভী ওয়েট প্রার্থীকে কারন দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন নির্বাচন কমিশন।

জানা যায়, খুলনা সিটি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের পরদিন রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী তালুকদার আবদুল খালেকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেন বিএনপি প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু।
মঞ্জু তার অভিযোগে বলেন, তালুকদার খালেক সাউথ বাংলা অ্যাগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের ভাইস প্রেসিডেন্ট, নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান, ইস্টার্ন পলিমার লিমিটেডের পরিচালক। এসব প্রতিষ্ঠান থেকে তিনি বিপুল পরিমাণ অর্থ আয় করেন। ইস্টার্ন পলিমারের ঋণ তথ্যও তার হলফনামায় উল্লেখ করেননি। হলফনামায় তথ্য গোপন ও নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘনের তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করা হয়।

অন্যদিকে মঞ্জুর অভিযোগের পরে পাল্টা অভিযোগের আঙ্গুল তোলেন আওয়ামী সমর্থিত মেয়র প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেকের অনুসারী আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ।
তারা উল্লেখ করেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জুর মাসিক আয় নির্বাচনী হলফনামার তথ্য অনুসারে ১৬ হাজার ৬৬৭ টাকা নিয়ে নানা প্রশ্ন তুলছেন এবং আচরণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ নিয়ে নির্বাচন কমিশন বরাবর লিখিত আবেদনও করেন।

যে কারনে, খুলনা সিটি করপোরেশন(কেসিসি) নির্বাচনে আচরণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেক ও বিএনপির মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জুর কাছে ব্যাখা চেয়ে নোটিস দিয়েছেন নির্বাচন কমিশন। রোববার (২২ এপ্রিল) খুলনা আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয়ের কর্মকর্তা এসএম হাবিব এবিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।