খুলনায় কোয়ারেন্টাইনে ১৭৯৬ জন, আগামী সপ্তাহে করোনা ছড়ানোর আশঙ্কা

0
20147

নিজস্ব প্রতিবেদক
খুলনা জেলা ও মহানগরীতে বিদেশফেরত ও তাদের সংস্পর্শে আসা ১৭৯৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে নগরীতে ৮৮৮ জন ও জেলায় ৯০৮ জন রয়েছেন। এছাড়া শরীরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ থাকায় একজনকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। আর কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় ৩২৯ জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার সকাল ১০টায় খুলনা সিভিল সার্জনের দপ্তর থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
কোয়ারেন্টিনে যাদের রাখা হয়েছে তারা সম্প্রতি ভারত, সৌদি আরব, সিঙ্গাপুর, ইতালি, কোরিয়াসহ বিভিন্ন দেশ থেকে ফিরেছেন। হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন দাকোপে ১০৫ জন, বটিয়াঘাটায় ৯৫ জন, রূপসায় ১০৬ জন, তেরখাদায় ৩৭ জন, দিঘলিয়ায় ৫৫ জন, ফুলতলায় ৬৬ জন, ডুমুরিয়ায় ৮৮ জন, পাইকগাছায় ১৩৮ জন, কয়রায় ২০৮ জন, খুলনা মহানগরীতে ৮৮৮ জন। ছাড়পত্র পেয়েছেন দাকোপের ৪৮ জন, বটিয়াঘাটায় ২৯ জন, রূপসায় ২৬ জন, পাইকগাছায় ৫৩ জন, কয়রায় ৮২ জন, ফুলতলায় ৪৫ জন, দিঘলিয়ার ১০ জন, তেরখাদার ১৪ জন ও খুলনা মহানগরীতে ২১ জন।
সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহমেদ বলেন, ‘বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের তাদের বাড়িতেই থাকতে কঠোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। চিকিৎসক দিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা গেছে, তারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত নন। তারপরও অন্তত ১৪ দিন তাদের বাড়ির বাইরে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।’
তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশে আগামী সপ্তাহে করোনাভাইরাস ছড়ানোর আশঙ্কা রয়েছে। তাই এ্ই সময়ে সবাইকে ঘরে থাকার এবং একই সাথে আইইডিসিআর এর নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানান তিনি।’