খুলনায় কোটা সংস্কার আন্দোলন পুলিশি বাঁধায় পণ্ড : কয়েকজন আহতের দাবি

0
738

নিজস্ব প্রতিবেদক : সারাদেশে চলমান কোটা সংস্কার আন্দোলনে ছাত্রলীগ কর্তৃক হামলার প্রতিবাদে প্রগতিশীল ছাত্র জোট খুলনা জেলা শাখার উদ্যোগে বুধবার সকাল ১১:৩০ টায় নগরীর পিকচার প্যালেস মোড়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের আয়োজন করা হয়। উক্ত সমাবেশে শুরু থেকেই পুলিশ বাঁধা প্রদান করতে থাকে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।
সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বার্তায় প্রগতিশীল ছাত্র জোট খুলনার মুখপাত্র তাপস পাল দাবি করেন, পুলিশ নেতৃবৃন্দকে রাস্তায় দাড়াতে বিধিনিষেধ আছে এই অজুহাতে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে ব্যানার এবং হ্যান্ড মাইক কেড়ে নেয়। তার পরেও নেতৃবৃন্দ অবস্থান করলে পুলিশ লাঠিচার্জ শুরু করে। পিকচার প্যালেস মোড় থেকে নেতৃবৃন্দ হাদিস পার্কের সামনে অবস্থান নিলে একসাথে ৫ জন অবস্থান করা যাবে না এমন অজুহাতে পুনরায় লাঠি চার্জ শুরু করে। নেতৃবৃন্দকে জোরপূর্বক বিভিন্ন যানবাহনে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এসময় পুলিশের লাঠিচার্জে ১০ জন ছাত্র নেতা আহত হন বলে দাবি করা হয়।
প্রগতিশীল ছাত্র জোট খুলনা জেলা থেকে পুলিশের হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং কোটা সংস্কারের চলমান যৌক্তিক আন্দোলনে সারাদেশের সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীসহ সকল স্তরের জনগনকে আন্দোলনে অংশগ্রহণের মাধ্যমে আন্দোলনকে বেগবান করার আহবান জানান।
এ বিষয়ে খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবীর বলেন, সমাবেশের কারণে সড়কে যানবাহন ও লোক চলাচল বিঘিœত হচ্ছিল, নেতাকর্মীরা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চেয়েছিল। সে কারণে তাদের সরিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে কোনো লাঠিচার্জ বা কাউকে আটক করা হয়নি।