খুলনার ৬টি আসনেই মহাজোটের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবে ১৪ দল

0
576

নিজস্ব প্রতিবেদক : অবশেষে ঐক্যমতে পৌছেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট। খুলনার ৬টি আসনেই মহাজোটের প্রার্থীর পক্ষে জোটবদ্ধভাবে কাজ করার ব্যাপারে একমতে পৌছেছে তারা।
সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় নগরীর একটি অভিযাত হোটেলে ১৪ দলের বিশেষ সভায় নেতৃবৃন্দ এ সিদ্ধান্তে পৌছায়।
সভায় সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েলসহ খুলনার ৬টি আসনে মহাজোটের প্রার্থীকে বিজয়ী করে আনতে সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার সিদ্ধান্ত নেয়। সভায় খুলনার ৬টি আসনে প্রত্যেকটিতে একটি করে এবং থানা উপজেলা, ওয়ার্ড ইউনিয়নে শরীক দলের নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।
সভায় খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও ১৪ দলের সমন্বয়ক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান এমপি’র সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ, সম্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন খুলনা-২ আসনে ১৪দল মনোনীত জাতীয় সংসদ সদস্য প্রার্থী সেখ সালাহ উদ্দিন জুয়েল।
জাসদ (ইনু) মহানগর সভাপতি খালিদ হোসেন এবং খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ দপ্তর সম্পাদক মো. মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগের পরিচালনায় সভায় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ জাসদ খুলনা মহানগর সভাপতি রফিকুল হক খোকন, ওর্য়াকার্স পাটি জেলা সভাপতি শেখ সাহিদুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. মিনা মিজানুর রহমান, সাম্যবাদী দলে এফ এম ইকবাল, জাপা’র কেন্দ্রিয় নেতা শরীফ শফিকুল হামিদ চন্দন, জেলা ন্যাপের সভাপতি মো. ফজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক তপন কুমার রায়, জাসদ (ইনু) জেলা সভাপতি গোলাম মোর্ত্তুজা, সাধারণ সম্পাদক আরিফুজ্জামান মন্টু, জাকের পার্টির মহানগর সভাপতি বদরউদ্দিন বিশ্বাস বদু, জেপি’র কেন্দ্রিয় নেতা অধ্যক্ষ ডা. এম এন আলম সিদ্দিকী, জেপি’র জেলা সভাপতি এ্যাড. আব্দুল মজিদ, মহানগর সাধারণ সম্পাদক কাজী মাসুদ আহম্মেদ, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক সোলেমান হাওলাদার, মহানগর আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি মল্লিক আবিদ হোসেন কবীর, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. রজব আলী সরদার, এমডিএ বাবুল রানা, শ্যামল সিংহ রায়, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন খান, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো. মফিদুল ইসলাম টুটুল, তরিকুল ইসলাম, কাজী জাহিদুল ইসলাম, শফিকুর রহমান পলাশ, শেখ ফারুক হাসান হিটলু, জাসদ নেতা এনামূল হক টুটুল, ওর্য়াকার্স পার্টির নেতা মনির আহমেদ, সেখ মফিদুল ইসলাম, মো. খলিলুর রহমান, এস এম ফারুখ উল ইসরাম, এ্যাড. মো. কামরুল হোসেন, জোয়াদ্দার, জাকের পার্টির নেতা মো. সাদের আলী সাদেক, গোলাম নবী মাসুম, মো. মনিরুল ইসলাম, এসকেন্দার উল ইসলাম, মো. ইব্রাহিম খলিল, মো. মিজানুর রহমান কুমকুম, সাম্যবাদী দলের নেতা মো. খলিলুর রহমান, মো. ফরহাদ হোেেসন, এ্যাড. মোস্তফা বিলাল, এস এম তারিকুল ইসলাম মানিক, জেপি নেতা মো. তপন কুমার শীল, ১৪দল নেতা শামীম আহসান, মো. নাসির উদ্দিন, আশুতোষ রায়, মো. মনির হোসেন, মো. শামীমুর রহমান, মিলন মোহন মন্ডল, মো. মোশাররফ হোসেন হাওলাদার, আবু বক্কর সিদ্দিকী, মো. নজরুল ইসলাম খান, মো.হায়দার আলী, মো. সাব্বির হোসেন, এস এম তাজরিয়ান হোসেন, হাফেজ মো. ওলিউর রহমান, এ্যাড. তমাল কান্তি রায়, মো. নাজমুল হুদা, এ্যাড. আল আমিন উকিল, মো. মেহেদী হাসান সহ ১৪ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।