খুলনার ১৩১ গীর্জা ও বিভিন্ন প্রকল্পে ভিনদেশী নাগরিকদের নিরাপত্তা দিতে বলেছে প্রশাসন

0
485

নিজস্ব প্রতিবেদক:
খুলনা জেলায় ১৩১ টি গীর্জা, সেখানে কর্তব্যরত ধর্মজাজক ও ভিনদেশী নাগরিক বিশেষ করে চীন,ভারত ও নিউজিল্যান্ডের নাগরিকদের নিরাপত্তা জোরদার করতে বলেছে জেলা প্রশাসন। আইন শৃঙ্খলা সংক্রান্ত জেলা কোর কমিটি এ সিদ্ধান্তের কথা জেলা প্রশাসন কেএমপি ও জেলা পুলিশ প্রশাসনকে জানিয়েছে। খুলনার দুটি প্রকল্প ও বিভিন্ন গীর্জায় প্রায় ২শ’ বিদেশী নাগরিক অবস্থান করছে।
জেলা কোর কমিটির সভার আলোকে গত ২ মে প্রতিবেদনে বলা হয়, কয়রা উপজেলার আংটিহারা নৌ-সীমান্তে চেক পোস্টের ব্যবস্থা করতে হবে। এ ছাড়া হোটেল রয়েল, ক্যাসেল সালাম, হোটেল সিটি ইন, হোটেল ওয়েস্টান ইন ও হোটেল টাইগার গার্ডেনে বিদেশীরা অবস্থান করলে পুলিশি নিরাপত্তার ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। জেলার বড় বড় গীর্জায় সিসি ক্যামেরা ও পুলিশি নিরাপত্তা দিতে বলা হয়েছে।
দাকোপ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মোকাররম হোসেন এ প্রতিবেদককে জানান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৩১ ও ৩২ পোল্ডারে বাজুয়া, সুতরখালী ও কামারখোলায় বেড়িবাধ নির্মাণে ৫৬ জন চীন দেশের নাগরিক কর্মরত রয়েছে। নাগরিকদের অবস্থানরত এলাকার পাশে পুলিশ অস্থায়ী ক্যাম্প করবে। প্রত্যেক ক্যাম্পে একজন করে অফিসার ও তিনজন করে পুলিশ দায়িত্ব পালন করছে। উপজেলার ৪৪ টি গীর্জায় পুলিশি নিরাপত্তা দেওয়া সম্ভব হয়নি তিনি জানান।
রূপসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোল্লা জাকির হোসেন জানান, পাথরঘাটা নামক এলাকায় ওয়াসার পানি টিটমেন্ট প্রকল্পে কর্মরত ২৬ জন চীনের নাগরিককে নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া উপজেলার তিলক ও জয়পুর গীর্জায় নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে।
জেলা কোর কমিটির সভায় উল্লেখ করা হয় খুবি, কুয়েট, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ও দুটি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় পর পর দু’দিন অনুপস্থিত শিক্ষার্থীদের তালিকা পুলিশকে অবগতি করার জন্য বলা হয়েছে।