খুলনার শীর্ষ দুই নেতা রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া!

0
581

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনাটাইমস:

খুলনায় সাবেক ছাত্রদল নেতার দেয়া কম্বল এবং কম্বলের প্যাকেট ওই নেতার লিফলেট বিতরন করছেন কেসিসির মেয়র মনিরুজ্জামান মনি ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য ও খুলনা-৩ আসনের সাবেক এমপি কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম । এ দুই নেতার লিফলেটসহ কম্বল বিতরন নিয়ে খুলনা বিএনপির এ দুই নেতার নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ।তৃর্ণমূল নেতা কর্মীরা শনিবার খুলনার স্থানীয় পত্র পত্রিকায় কেসিসির মেয়র ও নগর বিএনপির সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জানমনি ও সাবেক সংসদ এবং বিগত সংসদ নির্বাচনে চারদলীয় জোট প্রার্থী কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম কর্তৃক সাবেক ছাত্রদল নেতার প্রচার লিফলেটসহ কম্বল বিতরনের ছবি দেখে এই দুই নেতার রাজনৈতিক দেউলিয়াত্ব প্রকাশ করেছেন বলে মনে করেন বিএনপি ও অংঙ্গ সংগঠনের সাথে সংশ্লিষ্ঠরা ।
জানাগেছে, শুক্রবার বিকেলে নগরীর নিউজপ্রিন্ট শ্রমিক ভবনে ১২নং ওয়ার্ডের গরীব ও দুস্তদের মাঝে সাবেক ছাত্রদল নেতা রকিবুল ইসলাম বকুলের দেয়া কস্বল ও তার ছবি সম্বলিত প্রচারনার লিফলেট বিতরন করা হয় । আর এ অনুষ্ঠানের আয়োজক সংগঠন খুলনা মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দল ।স্বেচ্ছাসেবক দলের আয়োজনে এ কম্বল বিতরন অনুষ্ঠানে খালিশপুর থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা কর্মীদের তেমন একটি দেখা যায়নি এ অনুষ্ঠানে । এ ব্যাপারে কথা হয় খালিশপুর থানা স্বেচ্ছাসেবকদল নেতা সেলিমের সাথে,তিনি আক্ষেপ করে বলেন,রাজনিতি আজ  নিতির গতি হারিয়েছে । কেননা একজন রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে আমি মনে করি বর্তমানে খুলনার বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃত্ব আর দলের নিবেদীতপ্রান ত্যাগী নেতা কর্মীদের হাতে নেই । এখানে আছে যারা ফেইস দেখানো ফেসবুক পার্টি,গভীর রাতে বড়নেতাদের ফোন পার্টি, কতিপয় নেতাদের তেলমাড়া পার্টি,হাই কমান্ডের যোগাযোগ পার্টি,হাইব্রিড পার্টি ও নগদ পার্টি । এই সব পার্টিদের পট্টিতে রাজপথের আন্দোলনে সক্রিয় থাকা এবং হামলা, মামলা, কারাবন্ধীর স্বীকার তৃর্ণমুল পর্যায়ের ত্যাগী নেতা কর্মীরা আজ পৃস্ঠ হয়েছে ।খালিশপুর থানা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে মজিবর, খোকন, বারেকসহ কয়েকজন নেতা ক্ষোভের প্রকাশ ঘটিয়ে বলেন,খুলনার বিএনপিতে এখন আর গঠনতন্ত্র ও সাংগঠনিক ভাবে চলে না । এখন চলছে হুজুকে । হুজুকেই যদি না চলতো তাহলে একজন ব্যাক্তি তার কৈশর ও যৌবনের স্বাধ না নিয়ে শহীদ জিয়ার আর্দশকে বুকে ধারন করার অপরাধে ২৫/২৬ টি রাজনৈতিক মামলা মাথায় নিয়ে জেলজুলুম নির্যাতন,মাসের অধিক সময় পার করে আদালত চত্বরে  । আর এই ধরনের ত্যাগী ও পরিক্ষিত নেতা যদি দলের কাছে সে তার প্রাপ্প সম্মানটুকুই যদি না পায় তাহলে নতুন প্রজন্মকে আমরা শহীদ জিয়ার কি আর্দশ  শিক্ষা দিবো । তারা বলেন আমাদের মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন আহবায়ক কাজী ফজলুল কবির টিটো খালিশপুর থানা বিএনপির সাধারন সম্পাদক এস এম আরিফুর রহমান মিঠুর নামে প্যানা করার অপরাধে তাকে দল থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে । অথচ যারা এ অব্যাহতির সাথে জরিত তারা খালিশপুরে এসে কম্বল বিতরন করেন আর বক্তৃতায় শহীদ জিয়ার ৮২তম জন্মবার্ষিকীতে মুখে উচ্চারন করেন শহীদ জিয়ার ৫২তম জন্মবার্ষিকী আর পাশে বশে ক্যাল ক্যাল করে হাঁসি দেয় অতিথি নেতারা । তারা এ প্রতিবেদককে প্রশ্ন করে বলেন,দলের খালিশপুর থানা বিএনপির সাধারন সম্পাদকের নামে প্যানা করায় যদি টিটো কাজীকে দল থেকে অব্যাহতি দেয়া হয় তাহলে কেন শুক্রবার নিউজপ্রিন্ট শ্রমিক ভবনে একজন সাবেক ছাত্রদল নেতার প্রচার লিফলেটসহ তার দেয়া কম্বল বিতরনের যে ছবি প্রকাশ পেয়েছে তাদেরকে দল থেকে বহিস্কার করা হোক । কারন একজন সাবেক ছাত্রনেতার প্রচার লিফলেটসহ তার দেয়া কম্বল বিতরন কেসিসির মেয়র মনিরুজ্জামান মনি ও কাজী সেকেন্দার আলী ডালিমের রাজনৈতিক দেউলিয়াত্বই প্রমান করে বলে তারা মনে করেন । এ বিষয়ে মোবাইলে কথা হয় সাবেক এমপি কাজী সেকেন্দার আলী ডালিমের সাথে,তাকে প্রশ্ন করা হয় ২০ জানুয়ারী শুক্রবার নিউজপ্রিন্ট শ্রমিক ভবনে একজন সাবেক ছাত্রদল নেতার প্রচার লিফলেটসহ তার দেয়া কম্বল বিতরন করছেন আপনি ও কেসিসির মেয়র । জবাবে তিনি বলেন হ্যা কম্বল বিতরন করেছি তবে কে কম্বল দিয়েছে বা কম্বলের প্যাকেটে সাবেক ছাত্রদল নেতার প্রচার লিফলেট সেটা আমার খেয়াল নেই বলে ফোনটি কেটে দেন ।
উল্লেখ্য,বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দল শুক্রবার দিনব্যাপী কর্মসূচি পালন করে। বাদ জুম্মা খুলনা মহানগরীর ১২নং ওয়ার্ডের বায়তুল ফালাহ্ এতিমখানায় এতিমদের সাথে নিয়ে শহীদ জিয়ার আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া অনুষ্ঠান ও দুপুরের খাবার পরিবেশন করা হয়। এছাড়া বিকেল ৫টায় স্থানীয় নিউজপ্রিন্ট শ্রমিক ভবনে দুঃস্থ, অসহায় ও এতিমদের মাঝে সাবেক ছাত্রদল নেতার পক্ষে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।
কর্মসূচিসমূহে সভাপতিত্ব করেন স্বেচ্ছাসেবক দলের মহানগর আহবায়ক আজিজুল হাসান দুলু। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি খুলনা মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জামান মনি ও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক এমপি কাজী সেকেন্দার আলী ডালিমকে সাবেক ছাত্রদল নেতার ছবি সম্বলিত প্রচার লিফলেটসহ শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করেন । আর এ দুই নেতার কম্বল বিতরণের ছবি শনিবার প্রকাশ হলে তাদের রাজনৈতিক অবস্থান নিয়ে তৃর্নমূলে ব্যাপক সমালোচনা সৃস্টি হয় ।