খুবির সাধারণ শিক্ষার্থীদের কোটা সংস্কার আন্দোলন স্থগিত ঘোষণা

0
354

বিজ্ঞপ্তি: কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর মতো নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়নের দাবি রেখে আজ থেকে ক্লাসবর্জনসহ অন্যান্য কর্মসূচি আপাতত স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়া ঢাকায় আন্দোলনকারী ঢাবির শিক্ষার্থীদের মতো কয়েকটি বিষয় উল্লেখকরত বলেছে দাবিসমূহ নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পূরণ করা না হলে পুনরায় কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে। এ মর্মে আজ সকাল সাড়ে ১১ টায় সংবাদপত্রে প্রদত্ত এ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাক্ষর করেছেন আলীরাজ, সুমাইয়া ইসলাম, মোঃ শাহ আসাদুজ্জামান, শেখ সিফাত ইসলাম, আরশাদ হোসেন, জ্যোতি প্রকাশ, মোঃ আরমান ও মুশফিকুর রহমান। এতে সুষ্পষ্ট ঘোষণা চেয়ে নি¤েœাক্ত বিষয় তুলে ধরে বলা হয়: ১) মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রশ্নোত্তরপর্বে সংসদে যা বলেছেন সেটি সুস্পষ্ট করা প্রয়োজন এবং তা বাস্তবায়ন প্রক্রিয়াও সুস্পষ্ট করা প্রয়োজন, যেখানে আমরা একটি সময়সীমা দাবি করেছি। ২) পূর্ববর্তী বক্তব্যের প্রেক্ষিতে বলতে হয়, আমাদের দাবি ছিল কোটা সংস্কার, কোটা বাতিল নয়। কারণ, সমাজের বিভিন্ন মানুষের অধিকার সংরক্ষণের জন্য বিদ্যমান ব্যবস্থায় কোটার যে খাতগুলো রয়েছে তার কমবেশি প্রয়োজনীয়তা আছে। ৩) মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য অনুসারে প্রতিবন্ধী ও উপজাতিদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে, আমরা সেই বিশেষ ব্যবস্থার বাস্তবায়ন রূপরেখা সুস্পষ্টভাবে জানতে চাই। ৪) আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের যে সকল অঞ্চলে কোটা সংস্কার আন্দোলনের দাবিতে একত্রিত ছাত্র জনতার উপর ছাত্রলীগ ও পুলিশের হামলা ও হয়রানিমুলক আচরণের জন্য তীব্র নিন্দা জানাই এবং এ সকল বর্বরোচিত কার্যক্রমের জন্য দায়ীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানাই। ৫) আটককৃত নিরপরাধ আন্দোলনকারীদের অবিলম্বে নিরঙ্কশ মুক্তি এবং আহতদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার দাবি জানাচ্ছি। ৬) মাননীয় কৃষি মন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী দেওয়া বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। তার এই বক্তব্য প্রত্যাহার এবং ক্ষমা প্রার্থনার দাবি জানাচ্ছি।