খুবির পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনে নবীনবরণ ও বিদায় অনুষ্ঠান

0
77
????????????????????????????????????

খবর বিজ্ঞপ্তি: রবিবার বেলা ১১ টায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য জগদীশ চন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে ২০ ব্যাচের নবীনবরণ ও ১৬ ব্যাচের বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিন প্রধান ড. মোঃ রাশেদুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ। তিনি বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সুখকর স্মৃতি আজীবন মনে থাকে। এই স্মৃতি নিয়েই সামনে চলতে হয়, জীবন গঠন করতে হয়। এজন্যই বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কথায় ‘তোমায় নতুন করে পাবো বলে/হারাই ক্ষণে ক্ষণে।’ তিনি বিদায়ী শিক্ষার্থীদের প্রতি এ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্জিত জ্ঞান পেশাগত জীবনে পরিবার, দেশ, সমাজ ও মানবতার কল্যাণে কাজে লাগানোর আহ্বান জানান। নবাগত শিক্ষাথীদের প্রতি তিনি বলেন এ বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনো সেশনজট নেই, নেই কোনো রাজনীতি, নেই কোনো হানাহানি। এখানে শিক্ষার্থীদের জন্য সুযোগ অবারিত। শিক্ষার্থীদেরকে অবশ্যই আলোর পথের সন্ধান করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে সবাই আসে আলোকিত হতে। কেউ যদি অন্ধকার পথে পা বাড়ায় তবে সারা জীবনের জন্য সে অন্ধগলিতেই হারিয়ে যাবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ভবিষ্যৎ জীবনের সাফল্যের সোপান গড়ে দেয়। তাই এখান থেকে যথাযথ জ্ঞানলাভ করার জন্য তিনি শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিজ্ঞান, প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিদ্যা স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. উত্তম কুমার মজুমদার। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. ফারজানা নাহিদ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডিসিপ্লিনের শিক্ষক রিঙ্কু মজুমদার। শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখে ১৬ ব্যাচের আবু রায়হান হৃদয় ও ২০ ব্যাচের আয়মান মাহবুব। বিদায়ী এবং নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। পরে বিকেলে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে সকালে কবি জীবনানন্দ দাশ একাডেমিক ভবনের সামনে থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি একাডেমিক ভবনের সামনে থেকে শুরু করে কটকা স্মৃতিস্তম্ভ হয়ে হাদী চত্বরে এসে শেষ হয়।