খালেদা জিয়ার জামিনে ছলচাতুরির আশ্রয় নিলে পরিণাম হবে ভয়াবহ : খুলনা বিএনপি

0
479

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনাটাইমস:
বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর শাখার সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন ‘মাদার অব ডেমোক্রেসি’ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা অভিযোগে সাজানো-পাতানো মামলায় কারারুদ্ধ রেখে এবং তার জামিন নিয়ে ছলচাতুরিতার আশ্রয় নিয়ে সরকার ঘৃণ্য ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। বেগম খালেদা জিয়াকে বিনাঅপরাধে কারারুদ্ধ রাখার পরিণাম হবে ভয়াবহ। তিন তিন বারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার মামলায় কারাবন্দী রেখে সরকার আরো একটি সাজানো-পাতানো প্রহসনের নির্বাচন করতে চাইছে। দেশের ১৬ কোটি মানুষ সরকারের সে স্বপ্ন ধুলিসাৎ করে দেবে।
মঙ্গলবার বেলা ১১টায় নগরীর কেডি ঘোষ রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ কর্মসূচী চলাকালে সভাপতির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি। মিথ্যা ও বানোয়াট মামলায় বেগম খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন আপীল বিভাগে স্থগিত এবং মুক্তি পেতে বাঁধা প্রদানের সরকারি নীলনকশার প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষণার অংশ হিসেবে কর্মসূচি পালিত হয়।
নগর বিএনপি’র প্রচার সম্পাদক আসাদুজ্জামান মুরাদের পরিচালনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন ও উপস্থিত ছিলেন নগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কেসিসি মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনি, শাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, মীর কায়সেদ আলী, মোল্যা আবুল কাশেম, খায়রুজ্জামান খোকা, সিরাজুল ইসলাম মেঝোভাই, শাহ জালাল বাবলু, স ম আব্দুর রহমান, ইকবাল হোসেন, মোঃ ফকরুল আলম, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, আরিফুজ্জামান অপু, সিরাজুল হক নান্নু, মোঃ মাহবুব কায়সার, নজরুল ইসলাম বাবু, শেখ হাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান দীপু, শাহিনুল ইসলাম পাখী, মেহিবুজ্জামান কচি, আজিজুল হাসান দুলু, শেখ সাদী, সাদিকুর রহমান সবুজ, জালু মিয়া, সাজ্জাদ আহসান পরাগ, সাজ্জাদ হোসেন তোতন, কেএম হুমায়ুন কবির, একরামুল হক মিল্টন, একরামুল হক হেলাল, হাসানুর রশিদ মিরাজ, শামসুজ্জামান চঞ্চল, সেখ কামরান হাসান, শরিফুল ইসলাম বাবু, হেলাল আহমেদ সুমন, মুজিবুর রহমান ফয়েজ, নাজিরউদ্দিন আহমেদ নান্নু প্রমুখ
জেলা বিএনপি: এদিকে তারেক রহমানের মিথ্যা মামলায় রায়ের বিরুদ্ধে ও বেগম খালেদা জিয়ার অবিলম্বে কারা মুক্তির চলমান আন্দোলনে মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় কে ডি ঘোষ রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে খুলনা জেলা বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতির বক্তৃত করেন এ্যাড. এস এম শফিকুল আলম মনা।
এসময় তিনি বলেন, গণতন্ত্রকে চূড়ান্তভাবে কবর দেওয়ার লক্ষ্যেই খালেদা জিয়াকে এভাবে বন্দি করে রাখা হয়েছে। মানুষের আশা ভরসার আশ্রয়স্থল ছিল হাইকোর্ট। সেই সর্বোচ্চ আদালত থেকে দেশের সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রী ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। আপিল বিভাগের এ আদেশে সরকারের ইচ্ছার প্রতিফলন হয়েছে।
সভায় উপস্থিত ছিলেন আমীর এজাজ খান, মনিরুজ্জামান মন্টু, শেখ আব্দুর রশিদ, কামরুজ্জামান টুকু, আশরাফুল আলম নান্নু, খান আলী মুনসুর, মেজবাউল আলম, মোল্লা খায়রুল ইসলাম, মোল্লা মোশারফ হোসেন মফিজ, তছলিমা খাতুন ছন্দা, এ্যাড. শহিদুল আলম, শামসুল আলম পিন্টু, ডাঃ আব্দুল মজিদ, মুর্শিদুর রহমান লিটন, ওয়াহিদুজ্জামান রানা, এস এম শামীম কবির, উজ্জল কুমার সাহা, ইলিয়াস মল্লিক, আতাউর রহমান রনু, আব্দুল মান্নান মিস্ত্রি, গোলাম মোস্তফা তুহিন, সুলতান মাহমুদ, আতিয়ার রহমান, খায়রুল ইসলাম খান জনি, নুরুল আমিন বাবুল, মোল্লা সাইফুর রহমান, খন্দকার ফারুক হোসেন, আব্দুল্লাহেল কাফি সখা, জাবীর আলী, কাজী মিজানুর রহমান, আরিফুর রহমান আরিফ, কাজি ওয়াইজ উদ্দীন সান্টু, অধ্যাপক আইয়ুব আলী, জাফরী নেওয়াজ চন্দন, আঃ সালাম মেম্বার প্রমুখ।