কয়রায় ছাত্রলীগের উদ্যোগে ছাত্রলীগ নেতা রাসেলের মৃত্যু বার্ষিকী পালন

0
154

কয়রা প্রতিনিধি:
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ খুলনার কয়রা উপজেলা শাখার সাবেক সাধারন সম্পাদক সন্ত্রাসীদের তান্ডবে নির্মম ভাবে নিহত হাদিউজ্জামান রাসেলের ১ম মৃত্যু বার্ষিকী বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে পালন করা হয়েছে। কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে ২ মার্চ সকাল ১০ টায় মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে সন্ত্রাসী হামলায় নির্মম ভাবে নিহত রাসেলের হত্যা কান্ডে জড়িত সকলের ফাঁসি দাবী করে কয়রা সদরের প্রধান প্রধান সড়কে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে নেতাকর্মীরা। মিছিল শেষে দলীয় কার্যালয়ে কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকুর সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক আমিনুল হক বাদলের সঞ্চালনায় আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভা শেষে ছাত্রলীগ নেতা রাসেলের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে ছাত্রলীগের উদ্যোগে সকাল ৬ টায় কয়রা উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা, কালো পতাকা ও বুকে কালো ব্যাচ ধারণ করা হয়। সকাল ৮ প্রয়াত ছাত্রলীগ নেতা রাসেলের নিজ বাস ভবনের কবরস্থানে ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা কবর জিয়ারত করে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন বাবু, সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি ও কয়রা উপজেলা আওয়ামিলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম বাহারুল ইসলাম, সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগ আহ্বায়ক ও যুবলীগ নেতা ইমদাদুল হক টিটু, কয়রা উপজেলা যুবলীগ নেতা এ্যাডঃ আরাফাত হোসেন, পাইকগাছা উপজেলা যুবলীগ নেতা আকরামুল ইসলাম, খুলনা জেলা ছাত্রলীগ সহ সম্পাদক মাসুদ রানা, কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি এস এম তরিকুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ রানা শেফার, পাইকগাছা পৌর ছাত্রলীগ রাহায়ন পারভেজ রনি, সাবেক ছাত্রলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক রায়হান কবির চঞ্চল, ফেরদৌস আহমেদ, সাবির হোসেন শান্ত, বিলাল হোসেন, বেলাল আহম্মেদ বিল্লু, আমিনুল রহমান রাজা, মোক্তারুল ইসলাম, অপু মন্ডল, আমিনুর রহমান, উজ্জ্বল মন্ডল, তাইবুর রহমান তুহিন, শেখ সবুজ, সোহান, খালিদ, সাব্বির, নিতিশ সরকার, মোস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান, শরিফুল ইসলাম, কেসমত আলম শাকিল। উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ১ মার্চ বিকেলে উপজেলার বাগালী ইউনিয়ের বায়লা হারানিয়া এলাকায় বাতিকাটা খালের উপর নির্মাণাধীন ব্রিজের কাজকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাদীউজ্জামান রাসেল। এসময় রাসেলসহ ৮ জন আহত হন। রাসেলের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে ওই রাতেই খুমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেওয়ার পথে ২ মার্চ তার মৃত্যু হয়।