কয়রায় অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার ৩ আসামী গ্রেফতার

0
173

কয়রা প্রতিনিধি:
কয়রা থানা পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে অপহরণ মামলার ১ জন ও ধর্ষণ মামলার ২ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ জানায়, কয়রা উপজেলার কাঠমাচর এলাকার ছিদ্দিক সরদারকে ব্যবসার প্রলভন দেখিয়ে অপহরন করে নিয়ে যায় সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার সোনাটিকারী গ্রামের আবুল হাসান শিকদারের পুত্র রিপন (৩২)। বিষয়টি জানতে পেরে কয়রা থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল ইসলামের সার্বিক তত্ববধানে এসআই মোঃ ইব্রাহিম হেসেনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে কালিগঞ্জ এলাকা থেকে রিপনকে আটক করা হয়। এরপর ২ দফায় রিমান্ড শেষে তার শিকারুক্তিতে অবশেষে ৩ দিনের অভিযানে মানিকগঞ্জ জেলা থেকে ছিদ্দিক সরদারকে উদ্ধার করা হয়।
অন্যদিকে উপজেলার ঘুঘরাকাটি গ্রামের মাসুম ঢালীর যুবতী কন্যাকে বিয়ের প্রলভন দেখিয়ে ২ বন্ধু মাগুরা ও মানিকগঞ্জ এলাকায় অপহরন করে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে হযরত আলী ঐ যুবতীকে ধর্ষন করে। এ ব্যাপারে মাসুম ঢালী বাদী হয়ে কয়রা থানায় অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা করে।
পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে ঐ মামলার আসামী হযরত আলী (১৮) ও জুয়েল (১৮) কে আটক করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করেছে। কয়রা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল হোসেন বলেন, কয়রা থানার আইন শৃংখলার অবস্থা ভাল। তিনি যোগদান করার পর থেকে থানায় ১৯ টি নারী নির্যাতন আইনে বিভিন্ন ধারায় মামলা হয়েছে। সবক’টি মামলার ভিকটিম উদ্ধার, আসামী গ্রেফতার সহ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। কয়রার আইন শৃংখলা ভাল রাখতে তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেছে।