কেসিসির কর্মচারীকে পিটিয়ে টয়লেট ইজারার টেন্ডার ছিনতাই, উত্তেজনা

0
342

নিজস্ব প্রতিবেদক :

খুলনা সিটি কর্পোরেশন সম্পত্তি শাখার এক কর্মচারীকে পিটিয়ে টেন্ডার বাক্স ও সিডিউল ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার দুপুর ১টায় নগরীর রেজিস্ট্রি অফিসের সামনে এ ঘটনা ঘটে। দিন-দুপুরে কেসিসির কর্মচারীকে মারধর করে টেন্ডার ছিনতাইয়ের ঘটনায় তীব্র উত্তেজনা ও ক্ষোভ বিরাজ করছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী অফিস সহকারী আবু সাঈদ শেখ বাদি হয়ে খুলনা সদর থানায় জিডি করেছেন।
কেসিসি সূত্রে জানা গেছে, নগরীর হাদিস পার্ক দুই পাশের গাড়ির পাকিং স্পেস, পাবলিক টয়লেটসহ বিভিন্ন সম্পদ ইজারার দরপত্র বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয় গত ৮ মার্চ। গতকাল বুধবার ছিলো দরপত্র জমা দেওয়ার শেষদিন। দরপত্র জমা নেওয়ার স্থান ছিলো কেএমপি কমিশনারেরর দপ্তর, কেসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তার কার্যালয় এবং জেলা প্রশাসকের কার্যালয়।
জিডির আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার বিভাগের রক্ষিত টেন্ডার বাক্সের দরপত্র গ্রহণের জন্য সম্পত্তি শাখার অফিস সহকারী আবু সাঈদ শেখকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। বেলা ১টা ২০ মিনিট টেন্ডার বাক্স খুলে একটি দরপত্র পাওয়া যায়। আবু সাঈদ শেখ দরপত্রটি নিয়ে কেসিসিতে ফেরার পথে রেজিস্ট্রি অফিসের সামনে একটি দলের যুব নেতারা তার ওপর হামলা চালায়। তাকে ব্যাপক মারপিট করে তার প্যান্টের পকেট ছিড়ে দরপত্রটি ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এ সময় রেজিস্ট্রি অফিসের লোকজন তাকে উদ্ধার করে কেসিসিতে পৌছে দেয়। বিষয়টি কেসিসির উর্ধতন কর্মকর্তাদের অবহিত করলে তারা জিডি করার পরামর্শ দেন।
কেসিসির কর্মকর্তারা জানান, বিগত দিনে কেসিসিতে টেন্ডারবাজির অনেক ঘটনা ঘটলেও কর্মচারীকে মারধর করে সিডিউল ছিনতাইয়ের ঘটনা এটাই প্রথম। এ ঘটনায় কেসিসির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাঝে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। তারা ঘটনার সুষ্ঠু বিচার এবং ঘটনায় জড়িত ক্ষমতাসীন দলের কতিপয় নেতাদের বিরুদ্ধে দলীয় ফোরামে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।