কুঁন্দুড়িয়া প্রাইমারী স্কুলে অভিযোগের তদন্ত

0
243

আশাশুনি প্রতিনিধি:
আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের কুঁন্দুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরী কাম প্রহরীর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের প্রাথমিক তদন্ত অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে স্কুল কক্ষে এ তদন্ত অনুষ্ঠিত হয়। বুধহাটা ইউনিয়ন পরিষদের ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত আসনের মহিলা মেম্বার মোছাঃ মমতাজ বেগমসহ গ্রামবাসীর পক্ষে অনেকে বাদী হয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বরাবর তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার আবু সেলিম, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার গৌরাঙ্গ কুমার ও সহকারী শিক্ষা অফিসার শাহজাহান আলি দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়ে তদন্তে আসেন। তদন্তকালে দপ্তরী কাম প্রহরী শিব প্রসাদ সরকার চাকুরীতে যোগদানের সময় ৮ম শ্রেণি পাশের যে প্রত্যয়নপত্র প্রদান করেন, তা মিথ্যা ও বানোয়াট বলে যে অভিযোগ করা হয়ে এবং তার জন্ম সনদ নিয়ে অভিযোগের বিষয় নিয়ে প্রাথমিক তদন্ত করেন। তদন্ত শেষে তদন্ত কর্মকর্তাবৃন্দ বলেন, প্রাথমিক তদন্ত হিসাবে সরেজমিন আসা হয়েছে, পরবর্তীতে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়, ইউনিয়ন পরিষদসহ প্রয়োজনীয় স্থানে কাগজপত্র নিয়ে এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্য পাওয়ার পর তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়া হবে। অভিযুক্ত শিব প্রসাদ বলেন, তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের কোন ভিত্তি নেই। শত্রুতা ও প্রতিহিংসা মূলক ভাবে আমাকে হেনস্থা করতে এ অভিযোগ করা হয়েছে। বাদী পক্ষ বলেন, তাদের আনীত অভিযোগের পক্ষে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও স্বাক্ষ্য প্রমান প্রদান করা হয়েছে।