কিমের সঙ্গে বৈঠব করব : ট্রাম্প

0
321

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে আগামী ১২ জুন সিঙ্গাপুরে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনের বৈঠক হবে। ট্রাম্প নিজেই এ কথা জানিয়েছেন। মাত্র সপ্তাহখানেক আগেই তিনি বৈঠক বাতিল করেছিলেন।

স্থানীয় সময় শুক্রবার হোয়াইট হাউসে উত্তর কোরিয়ার জ্যেষ্ঠ দূত জেনারেল কিম ইয়ং-চলের সঙ্গে আলোচনা পর ট্রাম্প বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

জেনারেল কিম ইয়ং-চল কোরিয়ার নেতার পাঠানো একটি চিঠি ট্রাম্পের কাছে হস্তান্তর করেন। এ ব্যাপারে ট্রাম্প প্রথমে বলেন, চিঠিটি অত্যন্ত আগ্রহ উদ্দীপক। তবে পরে তিনি বলেন, চিঠিটি এখনো খুলে দেখেননি তিনি।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠেয় কোরীয় যুদ্ধ আনুষ্ঠানিকভাবে অবসানের বিষয়টি আলোচনার টেবিলে থাকবে।

১৯৫০-৫৩ সময়ের যুদ্ধ অস্ত্রবিরতির মধ্য দিয়ে শেষ হয়। তবে চূড়ান্ত শান্তি চুক্তি হয়নি।

হোয়াইট হাউসের লনে সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেন, ‘সিঙ্গাপুরে আমরা ১২ জুন বৈঠক করব। এটা বেশ ভালোই হলো।’

ট্রাম্প সতর্ক করে বলেন, বৈঠকে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচি বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসতে নাও পারে। তিনি বলেন, ‘আমি কখনো বলিনি এক বৈঠকেই হয়ে যাবে। আমার মনে হয়, একটা প্রক্রিয়া শুরু হবে। তবে সম্পর্ক তৈরি হচ্ছে এবং এটা ইতিবাচক বিষয়।’

উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের নেতাদের মধ্যে ঐতিহাসিক এ বৈঠকটি এটাই প্রথম। এর আগে ক্ষমতাসীন কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে এ ধরনের বৈঠক হয়নি। পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের শর্তে উত্তর কোরিয়ার অর্থনীতি পুনর্গঠন করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ট্রাম্প। তবে কিম জং-উন বলেন, কিছু কিছু ক্ষেত্রে তিনি পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে রাজি।