কলারোয়ায় অসহায় ব্যক্তির বন্দোবস্ত জমি দখল

0
434

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় অসহায় এক ব্যক্তির ৯৯ বছরের বন্দোবস্তকৃত জমি ভুমিহীন পরিচয়ে দখলের অভিযোগ উঠেছে এক প্রতারকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে-উপজেলার কিসমত ইলিশপুর গ্রামে। এঘটনার প্রতিকার চেয়ে সোমবার বিকেলে কলারোয়া পৌর প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন-উপজেলার কিসমত ইলিশপুর গ্রামের মৃত সাদু পালোয়ানের ছেলে আব্দুল মাজেদ পালোয়ান। তিনি বলেন-১৯৯৩ সালের ১৯ নভেম্বর কিসমত ইলিশপুর মৌজার ১খতিয়ানে ২০৩ নং দাগে ০.৩৫ শতক জমি ভুমিহীন হিসাবে তিনি ও তার স্ত্রী ফেরদৌসী বেগমের নামে সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের মাধ্যমে ৯৯ বছরের জন্য বন্দোবস্ত নেন। সেই থেকে ওই জমিতে তারা বসবাস করে আসছেন। এর মধ্যে একই গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদ এর ছেলে সরুত আলী ও রফিকুল ইসলামের স্ত্রী ফতেমা খাতুন ওই জমির মধ্যে থেকে ৬৭৯ আরএস দাগে ৭ শতক জমিতে বাশের বেড়া-টিন শেট দিয়ে ঘর নির্মান করে দখলে নেয়। এসময় তারা নিজেরাই ভুমিহীন হিসাবে দাবী করে এলাকায় প্রচার দেয়। অথচ সুরুত আলীর পিতার নামে ওই মৌজায় ১২৩ ও ৪৩৬ নং খতিয়ানের ৮টি দাগে ১শ’১২ শতাংশ জমি আছে। এদিকে এই জমি উদ্ধারের জন্য আব্দুল মাজেদ সাতক্ষীরার যুগ্ম জেলা জজ ১নং আদালতে দেওয়ানী মামলা নং-১৫১/১৯দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে বিচারাধীন রয়েছে। এর মধ্যে প্রতারক সুরুত আলী তাদের বিভিন্ন ভাবে হয়রানী করার জন্য এলাকায় মিথ্যা বানোয়ার্ট তথ্য সরবরাহ করে তাদের সুনাম নষ্ট করে আসছে। সংবাদ সম্মেলনে অসহায় আব্দুল মাজেদ উক্ত জমি উদ্ধারের জন্য স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এদিকে অভিযুক্ত সুরুত আলী ও তার পরিবারের ফোন বন্ধ থাকায় মন্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।