কপিলমুনিতে ছাত্রলীগ নেতা আমিরুল ইসলামকে পিটিয়ে গুরুতর আহত

0
54

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

পাইকগাছার কপিলমুনি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আমিরুল ইসলামকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা আনুমানিক ৭ টার দিকে সদরের ইউপি কার্যালয়ের সামনের রাস্তার উপর। এঘটনায় আমিরুলের পিতা মো: আব্দুল্লাহ বিশ্বাস বাদী হয়ে পাইকগাছা থানায় অভিযোগ করেছেন বলে জানানো হয়েছে।

জানাগেছে, কপিলমুনির নগর শ্রীরামপুরের আব্দুল্লাহ বিশ্বাসেন ছেলে আমিরুল ইসলাম সন্ধ্যা আনুমানিক ৭ টার দিকে কপিলমুনি থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে কপিলমুনি ইউপির সামনে পৌছালে বিভিন্ন বিষয়ে আমিরুলের সাথে পূর্ব বিরোধের জের ধরে তার উপর আকষ্মিক হামলা করা হয়।

অভিযোগে বলা হয়, মো: রাসেল হাজরার নেতৃত্বে ১৪/১৫ জন যুবক তার পথরোধ করে চারপাশ থেকে ঘিরে ধরে। এক পর্যায়ে রাসেল হাজরার নির্দেশে অন্যান্যরা তার উপর হামলা করে।

এঘটনায় আহত আমিরুলের পিতা আব্দুল্লাহ বিশ্বাস বাদী হয়ে রাসেল হাজরাকে প্রধান করে আলিফ হাজরা(২০), নুন হাজরা(২০), সানি হাজরা (২০), ইমরান খাঁ(২১), বাপ্পি সরদার (২৭), আকাশ মোড়ল (২৩) সহ অজ্ঞাত পরিচয় আরো ৭/৮ জনকে আসামী করে পাইকগাছা থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন।

অভিযোগে জানানো হয় হামলাকারীরা তাকে পরিকল্পিতভাবে লাঠি,লোহার রড দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর যখম করে। এসময় তারা তার পকেটে থাকা ব্যবসায়ীক ৭৫ হাজার টাকা,গলা থেকে স্বর্ণের চেইন ছিনতাই করে বলেও অভিযোগে জানানো হয়।

গুরুতর অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কপিলমুনি হাসপাতাল ও পরে অবস্থার অবনতি হলে পাইকগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আমিরুল গুরতর অবস্থায় বার বার কোন এক বাবুর নাম ধরে বলছিল, সে তাকে সবচেয়ে বেশি পিটিয়েছে।