কনসার্টে বাংলা গান গাওয়ায় হামলা

0
622

আসামের কনসার্টে বাংলা গান গাওয়ায় হামলার খবরকে ‘বানোয়াট’ বলে মন্তব্য করেছেন ভারতীয় গায়ক শান। গতকাল মঙ্গলবার এক টুইটে তিনি বলেন, ‘হামলার বিষয়টি সম্পূর্ণ বানোয়াট। একজন দর্শক প্রচণ্ড অঙ্গভঙ্গি করে গান থামানোর কথা বলেন। তার পরে শো এর টিকিট ভাঁজ করে ছোড়েন। কোনো পাথর ছোড়া হয়নি।’
ভারতের শীর্ষস্থানীয় একাধিক গণমাধ্যম জানিয়েছে, গত ২৮ অক্টোবর সারুসাজাই স্টেডিয়ামে কনসার্টটি হয়। সেটা খুব একটা সুবিধাজনক অভিজ্ঞতা না হলেও শান বলেছেন, ‘একটা ঘটনা দিয়ে একটা রাজ্যের প্রতি আমার স্মৃতিকে বিচার করব না।’
আসাম থেকে ফিরে শান টুইট করেন,‘আসাম ট্যুর খুব ভালো লেগেছে। অসাধারণ সব জায়গা দেখলাম। কিছু নতুন বন্ধু হলো। প্রতিটি কনসার্ট খুব ভালো হয়েছে। একটা ঘটনার জন্য এমন সুন্দর রাজ্যকে কাঠগড়ায় তোলা অনুচিত।’
ইতিমধ্যেই কনসার্টের অনেকগুলো ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছেন অনেকেই। ভিডিওতে দেখা গেছে, শান প্রথমে কয়েকটি হিন্দি গানে পারফর্ম করেছেন।
গুয়াহাটি প্লাস নামে এক সাইটের টুইটারে শেয়ার করা ক্লিপে দেখা যাচ্ছে, শান বাংলা গান শুরু করতেই স্টেজে চাঞ্চল্য দেখা দেয়। এ সময় তাকে লক্ষ্য করে গান থামিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনি যেই হোন, শিল্পীর প্রতি এরকম জিনিস ছুড়বেন না। শিল্পীকে সম্মান জানাতে শিখুন। আপনার ভালো না লাগলে চলে যান।’
তার পরে আর একটা গান গেয়ে শান তার পারফরম্যান্স বন্ধ করে দেন। তিনি বলেন, ‘আমি জ্বরের মধ্যে অ্যান্টিবায়োটিক খেয়ে এসেছি, তবে এমন লোকজন হলে আমি একটুও ইন্টারেস্টেড নই।’
শান তামিল, তেলেগু, মারাঠি, ইংরেজি, বাংলাসহ বিভিন্ন ভাষায় প্রায় ১০০-এর উপরে গান গেয়েছেন। ১৯৯৯ সালে প্যার ‘মে কভি কভি’ সিনেমায় ‘মুসু মুসু হাসি’ এবং ‘ওহ পেহলি বার’ গান দিয়ে তিনি বলিউডে ডেবিউ করেন। শাহরুখ খান, আমির খানের লিপেও তিনি গান গেয়েছেন। তথ্য: আমাদের সময়