এ রকম গিটার বাজিয়ে আরেকজন পাওয়া মুশকিল

0
496

অনলাইন ডেস্কঃ খুবই দুঃখজনক সংবাদ। আমার সঙ্গে তো বটেই, আমার ছেলের সঙ্গেও ভালো পরিচয় ছিল। একসঙ্গে প্রচুর গান করেছি কনসার্টে, নাইট ক্লাবেও। বাংলা গানে মাকসুদের পর আইয়ুব বাচ্চুর নামটাই থাকবে। শুধু বাংলা রকগানই নয়, বাংলা গানে এদের অবদান অনেক বেশি। যথেষ্ট ভালো গিটার প্লেয়ার বাচ্চু। এ রকম গিটার বাজিয়ে আরেকজন পাওয়া মুশকিল। গানের গলাও অসাধারণ। যথেষ্ট ভালো ইংরেজি গানও করতে পারত। এ ক্ষতি আসলে অপূরণীয়।

এই মুহূর্তে অনেক স্মৃতি মনে পড়ছে। ওর খুব ইচ্ছা ছিল কলকাতা পার্ক স্ট্রিটে রাতের বেলা বাজাবে। নিয়ে গেলাম। প্রায় এক ঘণ্টা ইংরেজি গান করল। কলকাতারই আরেকটি ব্যান্ডের সঙ্গে পারফরম করেছিল। রকিং পারফরম্যান্স ছিল সেটা, দর্শক পুরো মাত! কেউ তো আসলে জানত না ও এত ভালো ইংরেজি গান করে।

ব্যক্তিগতভাবেও আমাদের অনেক ভালো সময় কেটেছে। বাচ্চুর সঙ্গে আমার চেয়েও ভালো যোগাযোগ ছিল আমার ছেলে নীলের। প্রায়ই দুজনের কথা হতো। ও তো সকালে খবরটা শুনে রীতিমতো কাঁদছিল। নীল আর আমার দুজনেরই ইচ্ছা ছিল আমাদের ছবিতে ওকে দিয়ে গান করানোর। বাংলাদেশেও অনেকবার বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আমরা পারফরম করেছি। আমার চেয়ে বয়সে তো অনেক ছোট। নিজেরও বয়স হয়ে গেছে, চারপাশের প্রিয় বন্ধুরা একে একে যেতে শুরু করেছে। এ সময়টাতে দুঃখের চেয়ে ভয় হয় বেশি। মনে হয়, আমার পালা এবার এলো বলে।