এহিলার বদলে পুরুষ শ্রমিককে পাঠালে আয় দ্বিগুণ হবে : জনউদ্যোগ

0
271

খবর বিজ্ঞপ্তি:
দেশের মান মর্যাদা ঐতিহ্য রক্ষার স্বার্থে মহিলা শ্রমিক না পাঠিয়ে পুরুষ শ্রমিককে পাঠান তাতে আয় দ্বিগুণ হবে। দেশের মানও বাঁচবে আমাদের মান-ইজ্জতও বাঁচবে। পারিবারিক পরিবেশ সুন্দর থাকবে, দেশের মর্যাদা অক্ষুন্ন থাকবে ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকবে। না হলে আমরা দাসত্বের বাংলাদেশে পরিণত হব। সৌদি আরব, মালয়েশিয়াসহ বিভিন্ন দেশে অবিলম্বে নারী শ্রমিক পাঠানো বন্ধ করতে হবে। জনউদ্যোগ, খুলনার মানববন্ধনে এসব বলেন বক্তারা।
শনিবার বেরা ১১টায় শহীদ ডাঃ মিলন চত্বরে জনউদ্যোগ,খুলনার উদ্যোগে বিদেশে বাংলাদেশের শ্রমিকদের নিরাপত্তা ও নারী শ্রমিকদের শ্লীলতাহানী, নির্যাতন ও হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন বিএমএ’র সভাপতি ডাঃ শেখ বাহারুল আলম। সভা পরিচালনা করেন শ্রমিকনেতা এস এম চন্দন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জনউদ্যোগ,খুলনার সদস্য সচিব সাংবাদিক মহেন্দ্রনাথ সেন। অন্যন্যাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহানাগর আওয়ামীলীগের কৃষি সম্পাদক শ্যামল সিংহ রায়, সিপিবি’র মহানগর সভাপতি এইচ এম শাহাদৎ, ওয়ার্কার্স পার্টির মহানগর সভাপতি মফিদুল ইসলাম, বাসদের সমন্বয়ক জনার্দন দত্ত নান্টু, জেপি’র কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যক্ষ ডাঃ এম এন আলম সিদ্দিকী, আয়কর আইনজীবীর সাবেক সভাপতি এস এম শাহনেওয়াজ আলী, নাগরিকনেতা শাহিন জামান পণ, সিপিবি’র নারী সেলের আহবায়ক সুতপা বেদজ্ঞ, উন্নয়ন কমিটির নেতা মিজানুর রহমান বাবু, শাহ মামুনর রহমান তুহিন, সেফের সমন্বয়কারি মোঃ আসাদুজ্জামান, কনসেন্স’র নির্বাহী পরিচালক সেলিম বুলবুল, রূপসার নির্বাহী পরিচালক হিরন্ময় মন্ডল, বাহালুল আলম ,মোঃ শামীম, ব্যবসায়ী শাহনেওয়াজ খান, সাংবাদিক রাশীদুল আহসান বাবলু, শামসুল কাদের, আগুয়ান ৭১এর সভাপতি মোঃ আব্দুল্লাহ চৌধুরী, শেখ আইনুল হক, মাসাসের কৃষ্ণা দাশ, শিক্ষিকা উম্মে সালেহা প্রমুখ।