এমইউজে খুলনার বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিনের মুক্তির দাবিতে সাংবাদিক সমাজকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান

0
170

খবর বিজ্ঞপ্তি:
মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়ন (এমইউজে) খুলনার বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, একটি ভুয়া এবং বিতর্কিত মামলায় বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন-বিএফইউজের সভাপতি, দৈনিক সংগ্রামের চীফ রিপোর্টার অবিসংবাদিত সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিন গাজীকে যেভাবে গ্রেফতার করেছে তা লজ্জাজনক। সরকার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন দিয়ে সাংবাদিকদের কন্ঠরোধ করার অপচেষ্টা করছে। সরকার গণতন্ত্রের নামে দেশে একদলীয় স্বৈরশাসন কায়েম করেছে। আমরা এই গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা জানায়। অবিলম্বে দৈনিক সংগ্রাম সম্পাদক আবুল আসাদ ও চীফ রিপোর্টার রুহুল আমিন গাজীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও তাদের নি:শর্ত মুক্তির দাবি জানান। বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন-বিএফইউজে ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়ন (এমইউজে) খুলনার উদ্যোগে ২৪ অক্টোবর শনিবার দুপুরে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ এ সব কথা বলেন। এমইউজে খুলনার সভাপতি মো. আনিসুজ্জামানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) আবুল হাসান হিমালয়ের পরিচালনায় বক্তব্য দেন খুলনা প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য ও এমইউজে সাবেক সহ-সভাপতি মো. রাশিদুল ইসলাম, সাবেক সহ-সভাপতি আব্দুল খালেক আজীজী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এইচএম আলাউদ্দিন, সাংবাদিক নেতা মো. এরশাদ আলী, এমইউজে খুলনার কোষাধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক রানা প্রমুখ। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, বর্তমান সরকার অনেক টিভি চ্যানেল, সংবাদপত্র, অনলাইন সংবাদপত্র বন্ধ করে দিয়েছে। জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদ, আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, দৈনিক সংগ্রাম সম্পাদক আবুল আসাদ ও চীফ রিপোর্টার রুহুল আমিন গাজীকে কর্মস্থল থেকে পুলিশ দিয়ে সরকার তুলে নিয়ে গেছে। দেশে স্বাধীন মুক্ত গণমাধ্যমের স্বাধীনতা লঙ্গিত হচ্ছে। দক্ষিণ এশিয়ায় গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় বাংলাদেশের অবস্থান সর্বনি¤েœ। বিশে^র ১৮০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৫১তম। দেশে মুক্তমত প্রকাশের স্বাধীনতা নেই। গণতন্ত্রহীন, বিচারহীন, সাংবাদিকদের মতপ্রকাশের স্বাধীনতাহীন অবস্থায় চলছে। এ থেকে পরিত্রাণের জন্য সাংবাদিক সমাজকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।