একাদশ নির্বাচনে কি ভুলই করল আর্জেন্টিনা?

0
416

খেলা ডেস্ক:

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে আজ মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা। কিন্তু প্রথম ম্যাচের আগেই কোচ সাম্পাওলি যেন একটি চমকই দিলেন। একাদশে রাখেননি পাওলো দিবালা, ক্রিস্টিয়ান পাভোন আর লো সেলসোর কাউকেই। আর গোলবারের নিচে কাবায়েরোকে নিয়ে অনেক সমালোচনা থাকলেও কোচ আস্থা রেখেছেন তাঁর ওপরেই। তবে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের জন্য একটু সান্ত্বনা রেখেছেন সাম্পাওলি। হিগুয়েইনকে রাখেননি একাদশে!

দল গোছাতে হোর্হে সাম্পাওলি সময় পেয়েছিলেন এক মাস। আর তাই আর্জেন্টিনা সমর্থকেরা আশা করছিলেন, মেসি-দিবালার নতুন রসায়ন অন্য দলের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াবে। কিন্তু তা আর হলো কই! সাম্পাওলির সুনজরে না থাকা জুভেন্টাসের নাম্বার টেনের জায়গায় যে হয়নি মূল একাদশে। অথচ এই মৌসুমেও গোল করে এবং করিয়ে জুভেন্টাসের মূল ভরসা হয়ে উঠেছিলেন এই তরুণ।

অন্যদিকে গত কয়েক ম্যাচে আর্জেন্টিনার একাদশগুলো দেখে যে মূল একাদশ ধারণা করা হচ্ছিল, সে ধারণায় জল ঢেলে দিলেন হোর্হে সাম্পাওলি। স্পেনের সঙ্গে ম্যাচে উইলি কাবায়েরোর হাস্যকর সব ভুলের পরও তাঁর ওপরেই আস্থা রাখছেন কোচ। বিশ্বকাপে কাবায়েরোই কি আর্জেন্টিনার গোলপোস্টের মূল ভরসা হতে যাচ্ছেন? এখন তো তা-ই মনে হচ্ছে। ৩৭ বছর ছুঁই ছুঁই এই গোলরক্ষকের ওপর খুব একটা ভরসা নেই আর্জেন্টিনা সমর্থকদের। ধারণা করা হয়েছিল, রিভার প্লেটের ফ্রাঙ্কো আরমানিকে কোচ সাম্পাওলি হয়তো একটি সুযোগ দিতেও পারেন। আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যমও আরমানির কথাই বলছিল জোরেশোরে।

 

ফ্রাঙ্কো আরমানিকে একাদশে রাখেনি আর্জেন্টিনা। ছবি: এএফপি

 

আজকের ম্যাচে আর্জেন্টিনার একাদশ। গ্রাফিকসআজকের ম্যাচে আর্জেন্টিনার একাদশ। গ্রাফিকসআর্জেন্টিনার লিগে খেলা আরমানির জায়গা না হলেও একাদশে জায়গা হয়েছে মেজার। এখানেও চমক। বিশ্বকাপের আগে পাভোনকে নিয়ে কত হইচই। খোদ মেসি প্রশংসা করেছেন পাভোনের। সাম্পাওলি বলেছেন, অবশেষে মেসির খেলা বুঝতে পারে, এমন একজনকে পেল আর্জেন্টিনা। কিন্তু তাঁরও জায়গা হলো না। পাভোন আর পিএসজির উঠতি তারকা লো সেলসোকে আপাতত বেঞ্চে থাকতে হচ্ছে। আর্জেন্টিনা একটু সতর্ক পায়ে হাঁটতে চায় বলেই মনে হচ্ছে। চার ডিফেন্ডারের ওপরে দুই ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার হাভিয়ের মাচেরানো আর লুকাস বিগলিয়া থাকছেন। এ কারণেই মেজাকে বেছে নেওয়া। পুরোদস্তুর মিডফিল্ডারের ভূমিকা তাঁরই।

৪-২-৩-১ ফরম্যাটে দল সাজানো সাম্পাওলির ছক। আসলে সাম্পাওলির ফুটবলে মানিয়ে নিতে সব দলেরই একটু সময় লাগে। কিন্তু প্রস্তুতি-প্রীতিসহ আর্জেন্টিনাকে মাত্র ১১ ম্যাচে খেলিয়েছেন সাম্পাওলি। এমনকি বিশ্বকাপের আগেও আর্জেন্টিনা প্রস্তুতি ম্যাচ বলতে পেয়েছে হাইতির মতো র‌্যাঙ্কিংয়ে ১০৪-এ থাকা দলকে। মেসি আর দিবালা একসঙ্গে ৯০ মিনিটও খেলেছেন কি না সন্দেহ। দুজনের বোঝাপড়া তৈরির সুযোগই হয়নি। মেসিকে তাঁর পছন্দের ডান উইংয়েই জায়গা করে দিচ্ছে আর্জেন্টিনা। দিবালার তাই জায়গা হলো না। তিনিও ঠিক একই জায়গায় খেলেন।

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ, প্রতিপক্ষ কম পাসে পাল্টা আক্রমণে ক্ষুরধার আর উচ্চতায় ঢ্যাঙা আইসল্যান্ড বলেই হয়তো আর্জেন্টিনা প্রথম ম্যাচে বেশিই সতর্ক। আর্জেন্টিনা সমর্থকদের একটাই সান্ত্বনা, হাইতি ম্যাচেও একের পর এক সহজ সুযোগ নষ্ট করা হিগুয়েইনকে অন্তত আজ প্রথম একাদশে দেখতে হচ্ছে না!