একাগ্র সাধনা ও নিরন্তর প্রচেষ্টার মাধ্যমে সর্বত্রই সাফল্য অর্জন সম্ভব: উপাচার্য

0
382

বিজ্ঞপ্তি: খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইউআরপি ডিসিপ্লিনের লেকচার থিয়েটারে গণিত ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে এ এফ মুজিবুর রহমান ফাউন্ডেশন ৭ম এবং ৮ম গোল্ড মেডেল এ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠান বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. সত্যেন্দ্রনাথ বসু একাডেমিক ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। গণিত ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ হায়দার আলী বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান।
তিনি বলেন গণিত একটি মৌলিক বিষয়। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে গণিতের ভূমিকা রয়েছে। তিনি গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়নবিজ্ঞানের মতো মৌলিক বিষয়ের প্রতি শিক্ষার্থীরা যাতে আকৃষ্ট হয় সেজন্য এসব বিষয়ের গুরুত্ব তুলে ধরার আহবান জানান। এ ক্ষেত্রে এ এফ মুজিবুর রহমান ফাউন্ডেশন গণিতের প্রসার, উৎকর্ষ সাধন ও আগ্রহ বাড়াতে দেশে যে অবদান রেখে চলেছে তার জন্য ফাউন্ডেশনের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে তিনি আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে তাদেরকে আরও ভূমিকা রাখার আহবান জানান। তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, যারা গোল্ড মেডেল এ্যাওয়ার্ড লাভ করেছে তারা যেনো তাদের পরিবার, এ বিশ্ববিদ্যালয় এবং দেশকে মনে রাখে। তিনি বলেন দেশের যে উন্নয়ন হয়েছে এর পেছনে কৃষক, শ্রমিক মেহনতি মানুষের ঘাম ঝরানো প্রচেষ্টা ও তাদের অবদান রয়েছে। পেশাগত জীবনে যেয়ে আমরা যেনো তাদের অবদানের কথা ভুলে না যাই এবং তাদের জন্য, দেশের জন্য অবদান রাখলেই সেটাই হবে উত্তম প্রতিদান। তিনি শিক্ষার্থীদের প্রতি নিরলস অধ্যাবসায়ের মাধ্যমে এ ধরনের কৃতিত্ব অর্জনের পরামর্শ দিয়ে বলেন একাগ্র সাধনা ও নিরন্তর প্রচেষ্টার মাধ্যমে জীবনে সকল ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন সম্ভব। পরে তিনি কৃতি শিক্ষার্থীদের গোল্ড মেডেল পরিয়ে দেন এবং হাতে সনদ ও নগদ অর্থ তুলে দেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিজ্ঞান প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিদ্যা স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ রেজাউল হক, ছাত্রবিষয়ক পরিচালক প্রফেসর ড. আশীষ কুমার দাস এবং ফাউন্ডেশনের প্রতিনিধি মিসেস লোনা টি রহমান। গোল্ডমেডেল প্রাপ্তদের মধ্যে অনুভুতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন মোসাঃ রেশমা খাতুন ও শেখ আব্দুস সামাদ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ও সঞ্চালনা করেন গণিত ডিসিপ্লিনের শিক্ষক প্রফেসর ড. মুন্নুজাহান আরা। সপ্তমবারে গোল্ড মেডেল এ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তরা হলেন ¯œাতক (সম্মান) পর্যায়ে কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের জন্য মোসাঃ রেশমা খাতুন, ¯œাতকোত্তর (থিসিস গ্রুপ) শেখ আব্দুস সামাদ ও ¯œাতকোত্তর (নন-থিসিস গ্রুপ) ফারিজা শারমিন। অষ্টমবারে গোল্ড মেডেল এ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তরা হলেন ¯œাতকোত্তর (থিসিস গ্রুপ) মোঃ আজমীর ইবনে ইসলাম ও ¯œাতকোত্তর (নন-থিসিস গ্রুপ) আমিনা খাতুন। এসময় ব্যবস্থাপনা ও ব্যবসায় প্রশাসন স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. ফিরোজ আহমেদ, সমাজবিজ্ঞান স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. শাহনেওয়াজ নাজিমুদ্দিন আহমেদ ও আইন স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ ওয়ালিউল হাসানাত, সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, গোল্ড মেডেলপ্রাপ্ত কৃতি শিক্ষার্থীদের অভিভাবকবৃন্দ এবং এ এফ মুজবিুর রহমান ফাউন্ডেশনের প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে পাওয়ার পয়েন্টে এ এফ মুজিবুর রহমানের এবং তার পুত্র ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা এফ রেজাউর রহমানের সংক্ষিপ্ত জীবনী, ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম ও ২০১০ সাল থেকে এ পর্যন্ত খুবির গণিত ডিসিপ্লিনের গোল্ড মেডেল প্রাপ্তদের বর্তমান অবস্থান ও তথ্যাদি উপস্থাপন করা হয়। উল্লেখ্য, গোল্ড মেডেল প্রাপ্তদের প্রত্যেককে এক ভরি ওজনের সোনার মেডেল, নগদ ত্রিশ হাজার টাকা এবং একটি সনদপত্র প্রদান করা হয়। গণিত চর্চা ও গবেষণাকে উৎসাহিত করতে ২০১০ সাল থেকে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত ডিসিপ্লিনে সর্বোচ্চ জিপিএ অর্জনকারী কৃতি শিক্ষার্থীদের মধ্যে এই এ্যাওয়ার্ড প্রদান করে আসা হচ্ছে।

খুবি উপাচার্যের শোক: বাংলাদেশ প্রতিদিন ও চ্যানেল নিউজ ২৪ এর খুলনা ব্যুারো প্রধান সামছুজ্জামান শাহীনের পিতা মোঃ ইসহাক আলী শিকদারের ইন্তেকালে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। এক শোক বার্তায় তিনি মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন। অপরদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ ও প্রকাশনা বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ অনুরূপ শোক প্রকাশ করেছেন।