ইসলামী যুব আন্দোলন খুলনা মহানগরের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

0
763

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ বৃহস্পতিবার (২৩ মে) বিকাল ৪ টায় নগরীর নিউ কাইফিং চাইনিজ রেষ্টুরেন্ট এ ইসলামী যুব আন্দোলন খুলনা মহানগরীর ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
ইফতার মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের নগর সভাপতি মুহাম্মাদ ইসমাইল হোসেন এবং সঞ্চালনা করেন নগর সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইমরান হোসেন মিয়া।
ইফতার ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর নায়েবে আমীর অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা আব্দুল আউয়াল।
প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী যুব আন্দোলন এর কেন্দ্রীয় উপ সম্পাদক মাওলানা আল আমিন ইশতিয়াক।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, সম্প্রতি আমরা লক্ষ করছি বাংলাদেশের সর্বাধীক গুরুত্বপূর্ণ দুটি শ্রেণী কৃষক ও শ্রমিকরা বঞ্চিতের শেষ সিমায় উপস্থিত হয়েছে। কৃষকরা সারা বছর চাষ করছে কিন্তু সেই চাষের মূল্য না পাওয়ায় সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে তারা নিজেদের ফসলে আগুন জালিয়ে পুড়িয়ে ফেলছে। এটা অত্যান্ত দুঃখ জনক ও সরকারের জন্য লজ্জাকর বিষয়। একজন কৃষকের ১মন ধানের উৎপাদন খরচ ৭৫০ টাকা। অথচ তারা বিক্রয় করতে গেলে ১মন ধানে পাচ্ছে ৫০০-৬০০ টাকা, যা উৎপাদন খরচের ২০০/২৫০ টাকা কম, ফলে কৃষকরা লোকসানের ভার বইতে পারছে না। অপরদিকে আমরা লক্ষ করছি বাংলাদেশের কৃষকদের ধানের ন্যায্য মূল্য না পেলেও তার চেয়েও বহুগুন বেশি মূল্যে ভারত থেকে চাউল আমদানী করা হচ্ছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই এবং অতি দ্রুত কৃষকের ফসলের ন্যায্য মূল্য পাওয়ার ব্যবস্থা করার দাবি জানাই। পাশাপাশি সারা দেশের পাটকল শ্রমিকদের বেতন ভাতা বন্ধের প্রতিবাদে চলমান শ্রমিকদের সকল আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে তিনি বলেন- পবিত্র এ রমজান মাসে মাথার ঘাম পায়ে ফেলে যারা দেশ ও মানুষের কল্যাণে শ্রম দিয়েছে সেই শ্রমিকদের ঈদের পূর্বেই যাবতীয় বকেয়া পরিশোধের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।
প্রধান বক্তা তার বক্তব্যে বলেন রহমত, মাগফিরাত ও নাজাতের বার্তা নিয়ে আমাদের মাঝে রমযানের আগমণ হয়। এ মাসে সকল মুসলমান বেশী বেশী আল্লাহর ইবাদত করে ও আত্ম-সংযম করে থাকে। তবে এমনটা শুধু রমযানে নয় বরং সারা বছর করতে পারলেই সমাজে শান্তির হাওয়া বইবে। বিশেষ করে যুব সমাজে আত্মিক উন্নয়ন ঘটানোর জন্য বিশেষ ভূমিকা রাখে মাহে রমযান। তাই তিনি বলেন যুবকদের আত্মিক পরিশুদ্ধতা স্থায়ীত্ব ঘটাতে মহিমান্বিত মাসে সম্প্রীতি ও আদর্শের পথে যুব সমাজকে হাতছানি দিয়ে ডাকছে ইসলামী যুব আন্দোলন। তিনি আরো বলেন, পবিত্র এ মাসেও আমাদের মাঝে কিছু খারাপ কাজ সংঘটিত হয়ে থাকে। বিশেষ করে দ্রব্যমূল্যের দাম বৃদ্ধি করা, দিনের বেলায় প্রকাশ্যে হোটেলে পানাহার, অশ্লীল বিজ্ঞাপন প্রদর্শন এসব কার্যক্রম থেকে বিরত থাকতে তিনি সকলের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানান। পাশাপাশি এ মাসে প্রতিবেশীদের প্রতি বিশেষ খেয়াল রাখতে ও দরিদ্র বিমোচনে দানের পরিমাণ বৃদ্ধি করতে ইসলামী যুব আন্দোলনের পক্ষ থেকে তিনি সকলের কাছে আহবান জানান।

ইফতার মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় যুব নেতা মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নগর সভাপতি আলহাজ্ব মুফতী আমানুল্লাহ, সহ-সভাপতি মাওঃ মুজাফ্ফার হোসাইন, শেখ হাসান ওবায়দুল করিম, সেক্রেটারী শেখ মোঃ নাসির উদ্দিন, জয়েন্ট সেক্রেটারী মাওঃ দ্বীন ইসলাম, মোল্লা রবিউল ইসলাম তুষার, জিএম কিবরিয়া, প্রিন্সিপাল শফিকুর রহমান, আলহাজ্ব আমজাদ হোসেন, মাওঃ ইমরান হোসাইন, নগর শ্রমিক নেতা আলহাজ্ব জাহিদুল ইসলাম, নগর ছাত্র নেতা মুহা. সাইফুল ইসলাম, এইচ এম খালিদ সাইফুল্লাহ, আব্দুস সালাম জায়েফ, নগর যুব নেতা আলহাজ্ব আবুল কাশেম, এইচ এম জুনাইদ মাহমুদ, হাফেজ মোঃ হাসান, মোঃ সাইফুল ইসলাম, গাজী ফেরদাউস সুমন, মোঃ আব্দুর রশিদ, মাওলানা ফরিদ উদ্দিন আজহার, মোঃ আমজাদ হোসেন, মোঃ মনিরুল ইসলাম, মোঃ সাইফুর রহমান, মোঃ জহির মোড়ল, মোঃ আল-আমিন, মোঃ শিমুল ব্যাপারী ও জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।