আ.লীগ এক তরফা নির্বাচনের পায়তারা করছে : খুলনা বিএনপি

0
367

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : খুলনায় বিএনপির বিশাল মানববন্ধন কর্মসূচিতে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর সভাপতি সাবেক এমপি নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেছেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে যারা আর একটি এক তরফা নির্বাচনের স্বপ্ন দেখছেন তারা। ২০১৩ ও ২০১৫ সালের তীব্রতর আন্দোলনের কথা স্মরণে রাখুন। মনে রাখবেন, অবৈধ ভাবে রাষ্ট্রক্ষমতা দখলে রাখলেও রাজপথের দখল কিন্ত বিএনপির নেতাকর্মীদের।
বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে কেন্দ্র ঘোষিত তৃতীয় পর্যায়ের কর্মসূচির অংশ হিসেবে মঙ্গলবার খুলনায় অনুষ্ঠিত কর্মসূচিতে এসব বলেন তিনি। নগরীর কে ডি ঘোষ রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সকাল ১১ টায় শুরু হওয়া এ কর্মসূচি চলে সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত।
সড়কের দুপাশে দুই সারিতে ওয়ার্ড, থানা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের হাজার হাজার নেতাকর্মী এবং অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের কর্মীরা কর্মসূচির সমর্থনে ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেন। এ সময় মুর্হুমুর্হু শ্লোগানে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ১০ বছরের কারাদন্ডের অন্যায় রায় বাতিল, সারা দেশের কারাগারে আটক হাজার হাজার নেতাকর্মীর মুক্তি দাবি করা হয়।
সমাবেশে বক্তৃতা করেন কেসিসির মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, সাবেক এমপি কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর মাওলানা সাখাওয়াত হোসেন, মাওলানা গোলাম কিবরিয়া, বিএনপি নেতা মীর কায়সেদ আলী, শেখ মোশারফ হোসেন, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, শেখ খায়রুজ্জামান খোকা, সিরাজুল ইসলাম, শাহজালাল বাবলু, রেহানা আক্তার, স ম আব্দুর রহমান, এ্যাড. এস আর ফারুক, শেখ ইকবাল হোসেন, ফখরুল আলম, জামায়াত নেতা মাওলানা গোলাম রসুল, বিজেপি নেতা সিরাজউদ্দিন সেন্টু, মুসলিম লীগ নেতা এ্যাড. আক্তার জাহান রুকু, খেলাফত মজলিসের মাওলানা নাসিরউদ্দিন, জেপির মোস্তফা কামাল, বিএনপি নেতা শেখ আমজাদ হোসেন, অধ্যাপক আরিফুজ্জামান অপু, সিরাজুল হক নান্নু, নজরুল ইসলাম বাবু, আসাদুজ্জামান মুরাদ, মাহবুব কায়সার, শফিকুল আলম তুহিন, শাহিনুল ইসলাম পাখী, মহিবুজ্জামান কচি, এ্যাড. গোলাম মাওলা, ইকবাল হোসেন খোকন, শেখ গাউসুল আযম, আজিজুল হাসান দুলু, শেখ সাদী, এহতেশামুল হক শাওন, মুজিবর রহমান ফয়েজ, সাদিকুর রহমান সবুজ, ইউসুফ হারুন মজনু, সাজ্জাদ আহসান পরাগ, সাজ্জাদ হোসেন তোতন, জালু মিয়া, মুর্শিদ কামাল, কে এম হুমায়ুন কবীর, নিয়াজ আহমেদ তুহিন, হাসানুর রশিদ মিরাজ, আব্দুল আজিজ সুমন, কামরান হাসান, শেখ ইমাম হোসেন, মাহবুব হাসান পিয়ারু, চৌধুরী শফিকুল ইসলাম হোসেন, নাজমুল হুদা চৌধুরী সাগর, মুজিবর রহমান, আবু সাঈদ শেখ, আব্দুর রহমান, মোহাম্মদ আলী, সাইমুন ইসলাম রাজ্জাক, শরিফুল ইসলাম বাবু, হেলাল আহমেদ সুমন, নিঘাত সীমা, সিরাজুল ইসলাম মানিক, একরামুল কবির মিল্টন, জাহিদুর রহমান রিপন, রবিউল ইসলাম রুবেল, গিয়াসউদ্দিন বনি, সাইফুল ইসলাম, রোকেয়া ফারুক, আনজিরা বেগম, মাওলানা আব্দুল গফফার, তরিকুল্লাহ খান, জহর মীর, আফসারউদ্দিন মাস্টার, বদরুল আনাম, শমসের আলী মিন্টু, হাসান মেহেদী রিজভী, হাফিজুর রহমান মনি, শেখ জামালউদ্দিন, শেখ জামিরুল ইসলাম, হাসানউল্লাহ বুলবুল, হাবিব বিশ্বাস, লিটন খান, মোহাম্মদ আলী বাবু, শরিফুল আনাম, ওয়াহিদুজ্জামান, আবু সাঈদ হাওলাদার আব্বাস, সরদার ইউনুস আলী, ফারুক হিল্টন, আব্দুস শুকুর, জামাল মোড়ল, মেজবাহউদ্দিন মিজু, নাসির খান, আব্দুল জব্বার, খান মইনুল হাসান মিঠু, এইচ এম আসলাম, বাচ্চু মীর, রবিউল ইসলাম রবি, আনিসুর রহমান আরজু, মহিউদ্দিন টারজান, কামাল হোসেন, কাজী শাহনেওয়াজ নীরু, ইমতিয়াজ আলম বাবু, আব্দুর রহমান ডিনো, মতলেবুর রহমান মিতুল, শেখ আনসার আলী, আলমগীর হোসেন, মাসুদ রানা ডাবলু প্রমুখ। #