আড়ংঘাটায় মোটরসাইকেল চুরির প্রবণতা বৃদ্ধি

0
416

নিজস্ব প্রতিনিধি, খুলনাটাইমস :

নগরীর আড়ংঘাটায় মোটরসাইকেল চুরির প্রবণতা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। চোরের দল অভিনব পদ্ধতিতে তালা ভেঙে নিয়ে যাচ্ছে মোটরসাইকেল।
সূত্র জানায়, আড়ংঘাটা থানা এলাকার বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়কে ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালানো হয়। ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলের বেশির ভাগেরই নেই কোনো কাগজপত্র, নেই গাড়ির নম্বর। চুরি কাজে বিভিন্ন জেলার লোকজন জড়িত রয়েছে বলে জানা যায়। একটি চক্র এসব মোটরমাইকেল কেনাবেচার সাথে জড়িত।
এদিকে, গত শনিবার আড়ংঘাটা থানার পশ্চিম পাশে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে তালা দিয়ে মাগরিবের নামাজে যান এনজিও কর্মী সুবাহান আলী, নামাজ শেষ করে এসে দেখেন তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেল তালা ভেঙে নিয়ে গেছে।
গত বৃহস্পতিবার রাতে শলুয়া পূর্ণচন্দ্র মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অফিস রুমের তালা ভেঙে ল্যাপটপ, প্রিন্টার, ডেস্কটপসহ মূল্যবান অনান্য জিনিসপত্র নিয়ে যায় সংঘবদ্ধ চোরেরা। আড়ংঘাটা বাইপাস মোড়ের বরফ ব্যবসায়ী মোবুল হোসেনের গত শুক্রবার রাতে নিজ বাড়ি থেকে বাইসাইকেল চুরি হয়ে যায়।
অপরদিকে গেল বছরের ৮ ডিসেম্বর দুপুরে আড়ংঘাটা বাইপাসের মৎস্য ব্যবসায়ী আরমান শেখ ঘেরের পাশে রাস্তার ওপর মোটরসাইকেল রেখে ঘেরে যায়, ঘের থেকে ফিরে দেখেন তালা ভেঙে তার মোটরসাইকেল চুরি করে নিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে ব্যবসায়ী আরমান মোটরসাইকেল চুরির অভিযোগ করে আড়ংঘাটা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এ ব্যাপারে পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি, কিন্তু মোটরসাইকেল উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।
আড়ংঘাটা থানার ওসি কাজী রেজাউল করিম রেজা জানান, প্রতিদিন বিকেল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত পুলিশের একটি দল থানা এলাকায় টহল দেবে। গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে চেকপোস্ট বসিয়ে গাড়ির কাগজপত্র চেক করা হবে।