আসামে ভাগ্যহত ১৯ লক্ষ বাঙালির নাগরিকত্ব হরণের মত ঘটনায় আমরা চুপ থাকতে পারি না। -পীর সাহেব চরমোনাই

0
264

খবর বিজ্ঞপ্তি:
ভারতীয় উগ্রবাদী বিজেপি সরকার কাশ্মীরকে বিশেষ ক্ষমতা দেয়া অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাতিলের মাধ্যমে কাশ্মীর বিতর্কের পর আসামের ১৯ লক্ষ মানুষের নাগরিকত্ব কেড়ে নিতে যাচ্ছে। বিজেপি সরকারের ভাষ্যমতে এ ১৯ লাখ মানুষ বাংলাদেশী নাগরিক। বর্তমান রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করতেই সরকার যেখানে পুরোপুরি ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে, সেখানে আসামের ১৯ লাখ নাগরিক এনআরসির রিপোর্ট থেকে বাদ পড়া বাংলাদেশের জন্য উদ্বেগজনক। যা বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বর জন্য হুমকি।
মঙ্গলবার খুলনার শহীদ হাদীস পার্কে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন খুলনা বিভাগীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ছাত্র সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই)।
সংগঠনের সেক্রেটারী জেনারেল মুহাম্মাদ মুস্তাকিম বিল্লাহ-এর সভাপতিত্বে এবং খুলনা জেলা সভাপতি এস কে নাজমুল হাসান ও নগর সভাপতি মুহা. সাইফুল ইসলাম-এর যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বিভাগীয় সমাবেশে তিনি আরো বলেন গার্মেন্টসশিল্প বর্তমানে চরম সংকটে। শুধু এক কারখানায় চাকরীচ্যুত ৭০০ শ্রমিক। চামড়া শিল্প একেবারে বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছে। দেশ এখন চরম নিরাপত্তা সংকটে ভুগছে। পুলিশ যেখানে নিরাপদ নয়; সেখানে সাধারণ জনগণের নিরাপত্তা কোথায়? এ সকল সমস্যা সমাধানে জনগণের ঐক্যবদ্ধতার বিকল্প নাই।
সমাবেশে প্রধান বক্তা ছিলেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শেখ ফজলুল করীম মারুফ। আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর প্রেসিডিয়াম সদস্য আলহাজ্ব ডাঃ মোখতার হুসাইন, আল্লামা নুরুল হুদা ফয়েজী, নায়েবে আমীর অধ্যক্ষ হাফেজ মাও: আব্দুল আউয়াল, মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাও: ইউনুছ আহমাদ, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, ইশা ছাত্র আন্দোলনের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মাও: মুহাম্মাদ আরিফুল ইসলাম, ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক শেখ মুহা. আল-আমিন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মুহা. আব্দুল জলিল, কেন্দ্রীয় সদস্য এম এ হাসিব গোলদার, মুহা. ইবরাহীম হুসাইন, মাও. রেজাউল করিম, শেখ হাসান উবাইদুল করীম, শেখ মুহা. নাসির উদ্দিন, মাওঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন, মুফতী গাজী নূর আহমাদ, মুহা. জাহিদুর রহমান, মাও. তাওহীদুল ইসলাম, ইমরান হোসেন মিয়া, শেখ আমীরুল ইসলাম, মোঃ ইসহাক ফরিদী, মুহা. খালিদ সাইফুল্লাহ, শেখ মুহা. নাজমুল হুদা, মুহা. নাজমুস সাকিব, মুহা. আব্দুস সালাম জায়েফ। এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন ইশা ছাত্র আন্দোলনের খুলনা বিভাগের আওতাধীন সকল জেলা সভাপতিগণ এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা জেলা-মহানগর ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।