আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুর ও বড়দল সীমান্তে চেকপোস্ট

0
299

আশাশুনি প্রতিনিধি:
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুর ও বড়দল দু’টি সীমান্তে চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে চেকপোস্ট দু’টিতে কড়া পাহারা শুরু করা হয়েছে।
সাতক্ষীরা জেলার সকল সীমান্ত পথ দিয়ে কোন বাইরের জেলা থেকে আগত কেউ যাতে সাতক্ষীরায় প্রবেশ করতে না পারে এবং একই ভাবে সাতক্ষীরা জেলার ভিতর থেকে কেউ যাতে বাইরে যেতে না পারে এ জন্য কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করেন, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল। এরই ধারাবাহিকতায় প্রথম দিনেই (বুধবার) আশাশুনির দরগাহপুর-পাইকগাছা সীমান্ত “বাঁকা ব্রীজ” এর উপর এবং বড়দল-পাইকড়াছা সীমান্ত “বড়দল ব্রীজ” এর উপর চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়। চেকপোস্টের উদ্বোধন করেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা। চেকপোস্ট দু’টিতে স্থানীয় গ্রাম পুলিশ, সিপিপি সদস্য ২৪ ঘন্টা পালাক্রমে দায়িত্ব পালন করবেন এবং পুলিশ টিম নিয়মিত টহল দিবেন বলে সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানাগেছে। এখন থেকে পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত করোনা ভাইরাস সংক্রমনের ঝুঁকি এড়াতে সাতক্ষীরার বাহির থেকে কেউ সাতক্ষীরায় কিংবা সাতক্ষীরা থেকে বাহিরের জেলায় গিয়ে সরকারী/বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকুরিজীবিসহ সর্ব সাধারণ কেউ আগমন/প্রস্থান করতে পারবেন না। স্ব স্ব কর্মস্থলে অর্থাৎ জেলা ও উপজেলার মধ্যেই সকলকে অবস্থান করতে হবে। আগমন-প্রস্থান নিশ্চিত করতে খরিয়াটি, মহিষাডাঙ্গাসহ আরও কয়েকটি সীমান্তে চেকপোস্ট স্থাপন করা প্রয়োজন বলে সচেতন মহল মনে করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা বলেন, ডিসি স্যারের নির্দেশনা মত কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। আমরাও চেকপোস্ট গুলোতে নজরদারি রাখবো। চেকপোস্টে দায়িত্বরতদের ইফতারীর ব্যবস্থা করা হয়েছিল।