আশাশুনির বড়দলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

0
330

আশাশুনি প্রতিনিধি:
আশাশুনি উপজেলার বড়দলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে বড়দল বাজারের সরকারি খাস সম্পত্তিতে সম্প্রতি রাতের আঁধারে নির্মিত একাধিক অবৈধ দোকান ঘর উচ্ছেদ করা হয়েছে। সোমবার সকালে এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন, আশাশুনি উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মিজাবে রহমত। জানাগেছে, বড়দল বাজারের মুক্তিযোদ্ধা অফিস সংলগ্ন দক্ষিণ-পঞ্চিম পাশে ও কাঁচা বাজারের মাঝখানে সরকারি খাস সম্পত্তিতে গত শুক্রবার ও শনিবার রাতের আঁধারে বৃহৎ আকারের দুইটি দোকান ঘর তৈরী করেছিলেন, খুলনা জেলার পাইকগাছা থানার চাঁদখালি গ্রামের মৃতঃ মহাতাপ সরদারের পুত্র রাহাজান সরদার এবং আশাশুনি উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের সামছেদ গাজীর পুত্র রেজাউল মাস্টার। শনিবার বেলা ১১ টায় আশাশুনি উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিজাবে রহমতের নির্দেশে বড়দল ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা রনজিৎ কুমার অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ বন্ধ করে দেন এবং ঘর নির্মাণের সরঞ্জম জব্দ করেন। সোমবার সকালে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মিজাবে রহমত ঘটনাস্থানে উপস্থিত থেকে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে অবৈধ স্থাপনা দুটি ভেঙ্গে দিয়ে সরকারি খাস সম্পত্তি উদ্ধার করেন। এসময় তিনি বলেন, যেহেতু ঘরের মালিক খুঁজে পাওয়া যায়নি সেহেতু জরিমানা করা সম্ভব হলো না। তবে শুধু বড়দলে নয় উপজেলার কোথাও এরকম অবৈধ স্থাপনা পেলে যথাযত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বাজারের অবৈধ্য স্থাপনা ভেঙে দেওয়ার ফলে ব্যবসায়ীদের মধ্যে স্বস্তির বার্তা ফুটে উঠতে দেখা গেছে। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যবসায়ীর বক্তব্য, শুধু এ দুটি অবৈধ স্থাপনা কেন? এর পাশাপাশি এলাকার অনেক ক্ষমতাধার ব্যক্তিদেরও অবৈধ স্থাপনা রয়েছে। সেগুলোও একই ভাবে ভেঙে দেওয়া হোক তাহলে বাজারের একটা মনোরম পরিবেশ ফিরে আসবে।