আশাশুনির প্রাণকেন্দ্র বুধহাটা বাজারের ফুটপাত ব্যবসায়ীদের দখলে

0
704

আশাশুনি প্রতিনিধি:
আশাশুনি উপজেলার প্রাণকেন্দ্র ও প্রধান বাণিজ্যিক এলাকা হিসাবে পরিচিত বুধহাটা বাজার। এখানে সপ্তাহের সোম ও শুক্রবার হাট বসে। আশাশুনি উপজেলার বিভিন্ন এলাকাসহ সদর ও তালা উপজেলার কিছু অংশ থেকে ক্রেতা-বিক্রেতারা তাদের প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী কেনাবেঁচা করতে এ বাজারে আসেন। কিন্তু ব্যবসায়ীরা তাদের নির্ধারিত জায়গায় না বসে বাজারের ফুটপাত ব্যবহার করছে। ফলে বাজারের ফুটপাত চলে গেছে ব্যবসায়ীদের দখলে। কাঁচামাল ব্যবসায়ীরা তাদের নির্ধারিত চাঁদনী (সেড) ছেড়ে ফুটপাত দখল করে বহাল তবিয়তে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। কাঁচামাল ব্যবসায়ী অনেকেই জানান, তাদের জন্য যে দুটি চাঁদনী নির্ধারিত আছে সেখানে মাত্র ২৪ জন ব্যবসায়ীর বসার সুযোগ আছে। অথচ বাজারে কাঁচামাল ব্যবসায়ীর সংখ্যা প্রায় ১০০ জন। এত অধিক সংখ্যক ব্যবসায়ীর স্থান সংকুলান না হওয়ায় বাধ্য হয়ে তারা ফুটপাতে দোকান বসাচ্ছেন। পুরনো চাউল চাঁদনীরে একাংশে বসেছে চায়ের দোকান, অপর অংশ পড়ে আছে পরিত্যক্ত অবস্থায়। মসল্যা ও মুদি ব্যবসায়ীদের চাঁদনীতে দুই একজন দোকান নিয়ে বসেন, অন্যরা দোকান ছেড়ে চলে গেছেন ফুটপাতে। এদিকে মাছের বাজারের অবস্থা আরো ভয়াবহ। মাছ ব্যবসায়ীরা পুরনো যে চাঁদনীটিতে বসতেন সেটি চলে গেছে মাংস ব্যবসায়ীদের দখলে। মাছ ব্যবসায়ীরা বর্তমানে যে চাঁদনীটি ব্যবহার করছেন সেখানে তাদের সকলের স্থান সংকুলান হয় না। তাছাড়া মাছ ব্যবসায়ীদের জন্য বর্জ্য ফেলার নির্ধারিত স্থান এবং টয়লেট না থাকায় সেখানে চরম অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ বিরাজ করছে। অন্যদিকে প্লাস্টিক সামগ্রী বিক্রেতারা দোকানের সামনের সড়ক/ফুটপাতে মালপত্র রেখে দখলে রেখেছেন এবং বাজারের খেয়াঘাট সড়কতো কলা ব্যবসায়ীদের দখলে চলে গেছে। সব মিলিয়ে বাজারে এক হ..য..ব..র..ল অবস্থা বিরাজ করছে। এব্যাপারে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকার সচেতন মহল।