আশাশুনিতে বেড়ী বাঁধ ভেঙ্গে ৩ গ্রাম ও মৎস্যঘের প্লাবিত

0
366

মইনুল ইসলাম,আশাশুনি প্রতিনিধি:
আশাশুনি সদরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়ী বাঁধ ভেঙ্গে শতাধিক মৎম্য ঘের প্লাবিত ও ৩টি গ্রাম জলমগ্ন হয়েছে। বুধবার দিবাগত রাতে বলাবাড়িয়া গ্রামে বাঁধটি ভেঙ্গে যায়।
প্রবাসী হাফিজুর রহমানের বলাবাড়িয়া গ্রামে মৎস্য ঘেরের পানি উঠানো-নামানোর জন্য ওয়াপদার বাঁধে নির্মীত মিনি গেইট (কল গই) জরাজীর্ণ ছিল। রাত্র দেড় টার দিকে গেট ভেঙ্গে গেলে মুহুর্তের মধ্যে খোলপেটুয়া নদীর পানি ভিতরে ঢুকে শতাধিক মৎস্য ঘের নিমজ্জিত হয়ে যায়। প্রায় ১৫ হাত বাঁধ ভেঙ্গে ভিতরে ঢোকা পানির তোড়ে বলাবাড়িয়া, হাঁসখালী ও গাইয়াখালী গ্রামের বহু ঘরবাড়ি জলমগ্ন হয়ে পড়ে। বৃহস্পতিবার ভোর থেকে সদর ইউপি চেয়ারম্যান স ম সেলিম রেজা মিললেন নেতৃত্বে কর্মসূচির শ্রমিকসহ ৩ শতাধিক শ্রমিক কাজে লাগিয়ে বাঁধ রক্ষার কাজ করা হয়। ইউপি চেয়ারম্যান জানান, বুদ্ধিমত্তা ও শ্রম কাজে লাগিয়ে আপাতত পানি উঠা বন্ধ করা হয়েছে। দ্রæত বাঁধের সুরক্ষার জন্য বাকী কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, দ্রæত বাঁধ রক্ষায় পাউবো কর্তৃপক্ষ বাকী কাজ করতে সহায়তা না করলে পুনরায় প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম ঘটনাস্থান পরিদর্শন করেছেন এবং সঠিকভাবে কাজ এগিয়ে নিতে সহযোগিতা করেন। প্রসঙ্গতঃ এ ভাঙ্গন এলাকা সহ শ্রীউলার কয়েকটি স্থান এবং দয়ারঘাট-জেলেখালির বেড়ীবাঁধের অবস্থাও আশঙ্কাজনক রয়েছে। অতিদ্রæত এসব বেড়ীবাঁধে স্থায়ী বাঁধরক্ষা কাজ করার জন্য কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। #