আশাশুনিতে পৈত্রিক ভোগদখলীয় জমি জবর দখলের চেষ্টা

0
165

আশাশুনি প্রতিনিধি: আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নে পৈত্রিক ভোগদখলীয় জমিতে অবৈধ প্রবেশ করে ঘর নির্মানের চেষ্টার প্রতিকারের দাবিতে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। মহাজনপুর গ্রামের মৃত মোফাজ্জেল সরদারের ছেলে মাহবুবর রহমান ও অন্য ওয়ারেশসূত্রে মালিকগণ জানান, দাঁদপুর মৌজায় সিএস ৩৫২, এসএ ৩৭৬ খতিয়ানে এসএ দাগ ২১০ ও ২০৭ এ ৩০ শতক জমির অর্ধেকাংশ মৃত এবাছতুল্লাহ সরদারের ছেরে অহেদ আলি দিং বংশ পরম্পরায় কোবলামূলে ১৯৬৭ সালে হতে ভোগ দখলে আছেন। জমির কিছু অংশ খানাখন্দক, কিছু রাস্তার পাশের জমি। মৃত শহর আলি সরদারের ছেলে ইছার উদ্দিনরা ৮ ভাই উক্ত জমির মধ্যে তাদের জমি আছে দাবী সম্প্রতি অবৈধ দখলের ষড়যন্ত্র করে আসছিলেন। এমনকি অহেদ আলি, মাহবুবর রহমান দিং এর পরিবারের লোকজনকে হয়রানী, মান সম্মান নষ্ট, ক্ষয়ক্ষতি ও জীবন নাশের হুমকী দিয়ে আসছিল। এরই জের ধরে গত ১ জানুয়ারি আঃ ওয়াদুদ সরদারের ছেলে বাবু, মৃত শহর আলি সরদারের ছেলে আলাউদ্দিন, মৃত ছিয়ামুদ্দিন সরদারের ছেলে আবুল হোসেন অবৈধ দখলের ষড়যন্ত্র করেন। জানতে পেরে অহেদ আলি দিং থানাকে অবহিত করেন। পুলিশ আসার আগেই তারা বাঁশ চটা নিয়ে তারা জবর দখলের চেষ্টা চালালে বাঁধা দিলে তারা চলে যায়। পরদিন মাহবুবর রহমান বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করলে এএসআই কবির হোসেন ঘটনাস্থানে পৌছে সেখানে কাজ না করার নির্দেশ দিয়ে যান। কাজ বন্ধ রাখলেও হুমকী অব্যাহত রেখেছে এবং জমি দখল করবেই, প্রয়োজনে বাঁধা দানের প্রতিদান দিয়ে মজা দেখাবে বলে হুমকী ও ষড়যন্ত্র শুরু করেছেন বলে জানান তারা। ফলে প্রতিপক্ষের দ্বারা বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি ও রক্তারক্তির আশংখায় তারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এব্যাপারে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার আশু হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে।