আ’লীগ নয়; বিএনপিই সন্ত্রাসীদের প্রশ্রয়দাতা

0
448

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
বিএনপির ঢালাও মিথ্যাচারের কঠোর প্রতিবাদ জানিয়েছেন খুলনা সিটি কর্পোরেশন (কেসিসি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত ও ১৪ দল সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক। তিনি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, আমি এ পর্যন্ত নয় বার নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। কখনো সন্ত্রাসীদের প্রশ্রয় দেইনি, প্রশাসনকে কোন সন্ত্রাসীর বিষয়ে সুপারিশও করিনি। বরং কতিপয় বিএনপি নেতা যে অভিযোগ করছেন, তারাই চরমপন্থী-সন্ত্রাসীদের প্রশ্রয়দাতা। যার আয়ের কোন উৎস নেই, তিনি কিভাবে বিলাসবহুল জীবনযাপন করেন তা নগরবাসীর অজানা নয়।
আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থী তালুকদার খালেক আরও বলেন, আওয়ামী লীগ অরাজকতা নয় বরং জনগণের রায়ে বিশ্বাসী। বিএনপি বরাবরই মনগড়া কিছু কথা বলে জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। তারা সুষ্ঠু-অবাধ নির্বাচন চান, আবার তালিকাভুক্ত আসামীদের গ্রেফতার করলে অসন্তোষ প্রকাশ করছেন। এটা নিত্যন্তই পরিহাস। তাই আগামী ১৫ মে ভোট বিপ্লবের মাধ্যমে সন্ত্রাসীদের প্রশ্রয়দানকারী দল বিএনপিকে উপযুক্ত জবাব দিতে নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।
তিনি আজ মঙ্গলবার সকালে নগরীর ২০ নম্বর ওয়ার্ডে গণসংযোগ ও একাধিক পথসভায় বক্তৃতাকালে নগরবাসীর উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন। সকাল ৮টায় তিনি নগরীর ফেরিঘাট জিন্নাহ মসজিদ থেকে শুরু করে ফারাজিপাড়া লেন, ফারাজিপাড়া মেইন রোড, শেরে বাংলা রোড, শেখপাড়া বাজারসহ ওয়ার্ডে বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন। এসময় তিনি একাধিক পথসভায় বক্তব্য রাখেন এবং নির্বাচিত হলে অত্র এলাকা মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত করার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।
এসময় মেয়র প্রার্থীর সাথে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ)’র কেন্দ্রীয় সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, জাসদের মহানগর সভাপতি ও ১৪ দল নেতা রফিকুল হক খোকন, নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মল্লিক আবিদ হোসেন কবির, বিএমএ খুলনার সভাপতি ডা. শেখ বাহারুল আলম, সাধারণ সম্পাদক ডা. মেহেদী নেওয়াজ, ডা. কাজী হামিদ আজগর, নগর আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড. মো. সাইফুল ইসলাম, সোনাডাঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বুলু বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক তসলিম আহমেদ আশা, সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ কামাল, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি চ.ম মুজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মীর মো. লিটন, ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আলহাজ্ব মো. বাদশা হাওলাদার, সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী মাহমুদা বেগম, যুবলীগ নেতা শফিকুর রহমান পলাশ, নগর ছাত্রলীগ সভাপতি শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন, শেখ মোহাম্মদ আলী, রেজাউল করিম সবুজ, মোক্তার হোসেন, মিলকন হাসান রুমি, জনি বসু, প্রমুখ।
এর আগে তিনি সকাল সাড়ে ৭টায় রূপসা ট্রাফিক মোড় ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন সমিতির সভাপতি ডা. সুলতান, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, মিজানুর রহমান, মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, আতিয়ার রহমান, মোশারফ হোসেন খান, জালাল আহমেদ, হিমু, বাদল প্রমুখ।
বিকালে তিনি নগরীর ২১নং ওয়ার্ড এলাকায় গণসংযোগ করবেন।