আফগানিস্তান সিরিজ শেষ মুস্তাফিজের

0
350

স্পোর্টস ডেস্কঃ

ক্রীড়া প্রতিবেদক: ম্স্তুাফিজুর রহমান আইপিএলের শেষ ম্যাচে খেলতে গিয়ে পায়ের আঙুলে চোট পেয়েছিলেন, সেই কথা জানিয়েছিলেন কোচ কোর্টনি ওয়ালশ। বাঁ পায়ের বুড়ো আঙুলের চোট সারতে কোচ তাকে দুদিনের বিশ্রাম দিয়েছিলেন।

কিন্তু দুদিনের বিশ্রাম যথেস্ট নয়। কয়েক সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে চলে গেলেন বাঁহাতি এ পেসার। নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।ফলে আগামী মাসে আফগানিস্তানের বিপক্ষে পুরো সিরিজে দর্শক হয়ে থাকতে হবে মুস্তাফিজকে।

চোটের অবস্থা জানতে সোমবার এক্স-রে করানো হয় মুস্তাফিজের। আজ আরও কিছু পরীক্ষা-নিরিক্ষা করানো হয়। রিপোর্ট পাওয়ার পর বিসিবি চিকিৎসকের পরামর্শ তাকে আফগানিস্তান সিরিজ থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। বিসিবির সিনিয়র চিকিৎসক ডক্টর দেবাশীষ চৌধুরী বলেছেন,‘এক্স-রে করানোর পর ওর আঙুলে একটি সিটি স্ক্যান করানো হয়েছে। পায়ের আঙুলের হেয়ারলাইনে একটি চিড় ধরা পড়েছে। এ ধরণের ইনজুরি থেকে সেরে উঠতে তিন থেকে চার সপ্তাহ সময়ের প্রয়োজন। এ কারণে আফগানিস্তান সিরিজ খেলা হচ্ছে না। আমরা দুই সপ্তাহ পর তার পুর্নবাসন প্রক্রিয়া শুরু করব। প্রতিনিয়তই তাকে পর্যবেক্ষণ এবং মূল্যায়ন চালিয়ে যাব।’

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৩, ৫ ও ৭ জুন তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। ভারতের দেরাদুনে সিরিজ খেলতে আজ সকাল দশটায় ঢাকা ছাড়ে টিম বাংলাদেশ। আফগানিস্তান সিরিজের পরপরই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজে পুরোপুরি ফিট মুস্তাফিজকে চায় বাংলাদেশ। তাই আফগানিস্তান সিরিজে তাকে খেলিয়ে ঝুঁকি নেয়নি টিম ম্যানেজম্যান্ট।

বিসিবি চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী নিশ্চিত করেছেন, আগামী দুই সপ্তাহ মুস্তাফিজ পুরোপুরি বিশ্রামে থাকবেন। ঈদের পর থেকে পুর্নবাসন শুরু করতে পারবেন। এরপর ধাপে ধাপে বোলিংও শুরু করবেন।

মুস্তাফিজুর রহমানের আইপিএলটা কেটেছে মিশ্র অভিজ্ঞতায়। বাংলাদেশের বাঁহাতি পেসার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের প্রথম ছয় ম্যাচেই একাদশে ছিলেন। কিন্তু দলের পরের সাত ম্যাচে আর একাদশে জায়গা পাননি। মুম্বাইয়ের বাঁচা-মরার ম্যাচে একাদশে ফিরলেও পাননি কোনো উইকেট। মুম্বাইও ম্যাচ হেরে বিদায় নেয় আইপিএল থেকে। সেই ম্যাচে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্তের একটি স্ট্রেইট শট ঠেকাতে গিয়ে পায়ের আঙুলে চোট পেয়েছিলেন মুস্তাফিজ।