আন্তর্জাতিক সর্প দংশন সচেতনতা দিবস পালন

0
511

তথ্য বিবরণী:
‘সর্প দংশনে ওঝা নয়, হাসপাতালেই চিকিৎসা হয়’ প্রতিপাদ্য নিয়ে খুলনায় বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক সর্প দংশন সচেতনতা দিবস পালিত হয়। এ উপলক্ষে খুলনা সিভিল সার্জন দপ্তর ও জেনারেল হাসপাতাল র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করে।
খুলনা জেনারেল হাসপাতালের সভাকক্ষে আলোচনা সভায় জানানো হয়, আমাদের পরিবেশের অধিকাংশ সাপ বিষহীন। বিষধর সাপে কামড়ালে আক্রান্ত স্থানে বিষদাঁতের দুইটি গভীরক্ষত স্পষ্টভাবে বোঝা যাবে। এক্ষেত্রে আক্রান্ত স্থান থেকে রক্তক্ষরণের পাশাপাশি স্থানটি ফোস্কা পড়ে কালো হয়ে যেতে পারে। সাপের বিষ রোগীর ¯œায়ুতন্ত্রকে অকার্যকর করে রোগীর শরীরকে অনুভূতিহীন করতে পারে। ফলে আক্রান্ত ব্যক্তি কথা বলতে ও ঢোক গিলতে অসুবিধায় পড়তে পারেন।
সাপে কামড়ানো রোগীকে নড়াচড়া কম করাতে হবে এবং ওঝা ও ঝাড়ফুকের ন্যায় অপচিকিৎসা না করে দ্রুত হাসপাতালে নেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। বর্ষাকালে ঘরবাড়িতে সাপের উপদ্রপ হতে নিস্তার পেতে ঘরে কার্বলিক এসিড রাখা যেতে পারে।
খুলনার সিভিল সার্জন ডাঃ এএসএম আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডাঃ উৎপল কুমার চন্দ। অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আতিয়ার রহমান এবং ডাঃ মোঃ রফিকুল ইসলাম। সভার পূর্বে হাসপাতাল চত্ত্বর থেকে দিবসটি উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়।