আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মংলায় বসত ভিটা দখলের অভিযোগ

0
692

মংলা প্রতিনিধি: আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মংলার মাছমারা এলাকায় একটি পরিবারের বসত ভিটা দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রাতের আধারে দুর্বৃত্তরা এ দখল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে। এ ছাড়া বসত ভিটা হারানো পরিবারটিকে অব্যাহত হুমকি ধামকি দেয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। তবে এ বিষয় পুলিশের রহস্যজনক ভুমিকায় স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে।
ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটি জানায়, মাছমারা এলাকার সুধান হালদার গং ১৯৮৬ সালে কবলা দলিলমুলে প্রতিবেশি দেলোয়ার হোসেনের কাছে ৬ কাঠা জমি বিক্রি করে। পরবর্তীতে দেলোয়ার হোসেন ১৯৯১ সালে লতিকা রানীর কাছে ওই জমিটি বিক্রি করে দেয়। গত কয়েক বছর যাবৎ বৃদ্ধা লতিকা রানী পক্ষাঘাত রোগে আক্রান্ত হয়ে শষ্যাশায়ী পড়ে রয়েছে। তার অসুস্থ্যতার সুযোগে দিলীপ, ফিলিপ, যোসেফ সরদার, নির্মল হালদার ও উল্কাসহ স্থানীয় একটি চক্রের যোগসাযোসে এলাকার সুধান, বিনয়, নৃপন, টিটো, দীর্ঘদিন ওই জমি নিজেদের দাবি করে জবর দখলের পাঁয়তারায় লিপ্ত হয়। এ অবস্থায় অসুস্থ্য বৃদ্ধার পুত্র নিরাপদ হালদার পরিবারের নিরাপত্তার স্বার্থে আদালতের শরনাপন্ন হয়। গত ১১ এপ্রিল বাগেরহাট জেলো ম্যোজিস্ট্রেট আদালত ওই জমিতে অনুপ্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা (১৪৪ ধারা) জারি করে। একই সঙ্গে আদালত এ সংক্রান্ত একটি আদেশ স্থানীয় থানা পুলিশকে দেয়া হয়। কিন্তু আদালতের এ নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে দূস্কৃতকারী চক্রের সদস্যরা অসহায় পরিবারটির বসত ভিটা গত মঙ্গলবার রাতের আধারে দখল করে নিয়েছে। এ বিষয় মংলা থানার এস আই গৌতম মন্ডল জানান, তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং শান্তি শৃংখলা রক্ষার চেস্টা করছেন। ওই জমিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকার কথা স্বীকার করে তিনি আরও বলেন, আমরা মাছমারা এলাকায় গিয়ে বিবাদী পক্ষকে জমি দখল বা ঘর তৈরী করতে নিশেধ করা হয়েছে তার পরেও কেউ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।