আদর্শিক পরিবর্তনের মাধ্যমে ইভটিজিং, ধর্ষণ বন্ধ করা সম্ভবঃ চরমোনাই পীর 

0
395
☆ আগামীকাল আখেরী মোনাজাত
শেখ মোঃ নাসির উদ্দিনঃ
চরমোনাইতে ছাত্র গণ জমায়েতে সারাদেশের ছাত্রদের উদ্দেশ্যে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, বাংলাদেশে যেভাবে  ইভটিজিং, ধর্ষণ হত্যা, আত্মহত্যা বেড়ে চলেছে এর থেকে পরিত্রাণের উপায় হলো ধর্মীয় আদর্শের মাধ্যমে এগুলো বন্ধ করা সম্ভব, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর ও চরমোনাই পীর আজ (২৮ নভেম্বর ) সকাল ১১ টায় চরমোনাই ময়দানে মাহফিলের তৃতীয় দিনে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন উদ্যোগে ছাত্র গণ জমায়েতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।
চরমোনাই পীর আরও বলেন ছাত্ররা হলো দেশ ও জাতীর ভবিষ্যৎ, তারা একসময় এদেশ পরিচালনা করবেন তাদেরকে এখন থেকেই সঠিক পথে পরিচালনা না করলে ধর্ষণ করে সেঞ্চুরী উৎযাপন করবেই, তিনি বলেন আদর্শ যদি দেখতে চাও, সাহেবায় কেরামের পথে চলতে চাও তাহলে ইশা ছাত্র আন্দোলনের পতাকা তলে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।
ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি জি এম রুহুল আমীনের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারী জেনারেল শেখ মুহা. সাইফুলের পরিচালনায় আয়োজিত ছাত্র গণ জমায়েতে আরও গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য পেশ করেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহাসচিব মাওঃ অধ্যক্ষ ইউনুচ আহমেদ, যুগ্ন মহাসচিব অধ্যাপক এটি এম হেমায়েত উদ্দিন, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, মাওঃ গাজী আতাউর রহমান, মাওঃ শেখ ফজলে বারী মাসুদ, মোঃ বরকত উল্লাহ লতিফ, মোঃ জান্নাতুল ইসলাম, মুফতী দেলোয়ার হোসেন সাকী, ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি কে,এম, আতিকুর রহমান, সেক্রেটারী জেনারেল মাওঃ নেছার উদ্দিন, শ্রমিক আন্দোলনের  সাধারণ সম্পাদক মোঃ খলিলুর রহমান, ছাত্র আন্দোলনের সহ সভাপতি শেখ ফজলুল করীম মারুফ, মুহা. হাছিবুল ইসলাম, এস এম এমদাদুল্লাহ ফাহাদ, মোঃ আরিফুর রহমান, মোঃ নোমান আহমেদ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন দায়িত্বশীল। এদিকে সকাল ৯ টায় চরমোনাই ময়দানে ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। শ্রমিক  সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী, বিশেষ অতিথি ছিলেন ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওঃ ইউনুচ আহমেদ, মাওঃ গাজী আতাউর রহমান। ইসলামী শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক আশরাফ আলী আকনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়, বক্তব্য রাখেন আলহাজ্ব আব্দুর রহমান, মোঃ আবু তাহের, মোঃ খলিলুর রহমান, মাওঃ ফখরুদ্দীন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
এদিকে মাহফিলের তৃতীয় দিনেও আখেরী মোনাজাতে অংশগ্রহণের জন্য হাজার হাজার মানুষের ঢল নেমেছে , বাদ ফজর মুফতী ফয়জুল করীম শায়েখে চরমোনাই’র বয়ানের পর একজ বিধর্মী কলেমা পড়ে ইসলাম গ্রহণ করেন, আজও একজনের মৃত্যু হয়েছে । অসুস্থাদের জন্য একটি বেসরকারী হাসপাতাল রয়েছে সেখানে অসুস্থদের প্রাথমিক চিকিত্‍সা চলে এবং গুরুতরদের এম্বুলেন্সের মাধ্যমে বরিশাল মেডিকেলে পাঠানো হয়। সূত্র জানা যায় বাংলাদেশের বিশিষ্ট আলেম শাহতলীর পীর সাহেব আল্লামা আবুল বাশার সাহেব চরমোনাইতে অবস্থান করছেন তিনি রাতে মাহফিলে বয়ান করবেন, আজ সকালে প্রত্যেকটি হালকায় ইমামগণ প্রত্যেকজনকে হাতে কলমে নামাজ শিক্ষা দেন, বিকালে পীর সাহেব চরমোনাই প্রত্যেকজনের আমলের পরীক্ষা নেন – পাশকৃতদের পরবর্তী ছবক প্রদান করেন এবং  বিভাগীয় হাজিরা গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। আগামীকাল বুধবার সকালে আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে বিশ্বের তৃতীয় ইসলামী মহা সম্মেলন শেষ হবে।