আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে দূর হতে যাচ্ছে মোংলা পৌরবাসীর পানির সংকট

0
372
dav

মোংলা প্রতিনিধি: অবশেষে দূর হতে যাচ্ছে মোংলা পোর্ট পৌরসভার বাসিন্দাদের বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এ সংকট দূর করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছে পৌর কর্তৃপক্ষ ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ। মঙ্গলবার দুপুরে এই দুইটি সংস্থার প্রতিনিধি দল বিশুদ্ধ পানি সংকট মোকাবেলায় শহরের কুমারখালীতে প্রায় ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত দ্ধিতীয় ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লানটি পরিদর্শন করেন। এ সময় জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের মোংলা ও গোপালগঞ্জের দায়িত্বে থাকা নির্বাহী প্রকৌশলী দীপক চন্দ্র তালুকদার বলেন, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের তত্বাবধায়নে নির্মিত ‘মোংলা পোর্ট পৌরসভার পানি সরবরাহ’র দ্বিতীয় প্রকল্পটি পৌর কর্তৃপক্ষের কাছে বুঝিয়ে দিতেই মঙ্গলবার সদ্য নির্মাণ সমাপ্ত এ প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করা হয়েছে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এ প্রকল্পটি হস্তান্তর করা হবে বলেও জানান তিনি। এসময় তিনি আরো বলেন, তিন দশমিক ছয় মিলিয়ন লিটার ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন একটি অবকাঠামোসহ দুইটি ইনটেক ষ্টেশন, দুইটি ইনটেক পাম্প, দুইটি হাই লিফট পাম্প, ৪৫০ ঘন মিটার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন একটি উচ্চ জলাধার, একটি ইমপাউন্ডিং রিজার্ভার ও ২১০০ কেভিএ সাব ষ্টেশন পৌর কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হবে। তবে আগামীকাল থেকে নতুন এ প্রকল্প হতে পানি সরবরাহ করা যাবে বলেও তিনি জানান।
উল্লেখ্য, ব্যাপক দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ তুলে ২০১৬ নির্মিত এ পানির প্রকল্পটি এতদিনে বুঝে নেয়নি পৌর কর্তৃপক্ষ। পৌর মেয়র আলহাজ্ব মো: জুলফিকার আলী বলেন, মঙ্গলবার আমরা যৌথভাবে এ প্রকল্পটি সার্ভে করেছি, প্রকল্পটির যে যে স্থাপনা ঠিকঠাকভাবে সম্পূর্ণ হয়েছে সেগুলো পর্যায়েক্রমে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে বুঝে নিতে পারবো। নতুন এ প্রকল্পটি বুঝে পেলে লবণ পানি অধ্যুষিত পৌরবাসীর দীর্ঘদিনের সুপেয় পানির চাহিদা পুরোপুরি পূরণ হবে বলেও জানান তিনি।