অস্ট্রেলিয়া ২০২২-এ পাকিস্তানে যাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী

0
262

খুলনাটাইমস স্পোর্টস: ২০২২ সালে পাকিস্তান সফরে যাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। তবে সিএ-এর প্রধান নির্বাহী কেভিন রবার্ট জানিয়েছে, তিনি নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন এবং কখনো খেলোয়াড়দের জীবন ঝুঁকিতে ফেলতে চান না।
ঘরের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান। সেই উদ্যোগে কিছুটা হলেও সফল পিসিবি। শ্রীলঙ্কাকে তারা রাজিও করিয়েছে। লঙ্কানরা তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে পাকিস্তানে।
এছাড়াও বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গেও আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে তারা। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটের সঙ্গেও আলোচনা বসেছিল পিসিবি। এক দশক পর উচ্চ পর্যায়ের ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রতিনিধি হিসেবে পাকিস্তান সফরে যান রবার্টস। ফিরেছেন বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর)।
এরপর ২০২২ সালে পাকিস্তান সফরে যাওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করে মেলবোর্নের সেন রেডিও’কে তিনি পাকিস্তান সফরের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন। সিএ প্রধান নির্বাহী বলেন, ‘সবকিছু সঠিক নির্দেশনায় চলছে। আমরা সাঁজোয়া গাড়িতে ভ্রমণ করেছি এবং পুলিশ আমাদের নিরাপত্তা দিয়েছে। আমরা অত্যন্ত নিরাপদ বোধ করেছি তাতে। তবে অবশ্যই, ক্রিকেটেও এখন পযর্ন্ত সেই স্তরের সুরক্ষা প্রয়োজন।’
তিনি আরো বলেন, ‘আমরা চাই, পাকিস্তানেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরে আসুক। তবে সতর্কতা যে, আমরা কখনো আমাদের খেলোয়াড়দের জীবন বিপন্ন করতে পারব না।’
২০০৯ সালের মার্চে লাহোরের একটি টেস্টে জঙ্গিরা অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় সফরকারী শ্রীলঙ্কার টিম বাসে। তাতে ৬ জন লঙ্কান ক্রিকেটার আহত হয়। ৬ জন পুলিশ ও ২ জন সাধারণ নাগরিক মৃত্যুবরণ করেন। এরপর থেকে আর কোনো দল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে পাকিস্তান সফরে যায়নি।
অস্ট্রেলিয়া শেষবার পাকিস্তান সফরে গিয়েছে ১৯৯৮ সালে। কেবল অজিদের বর্তমান টেস্ট অধিনায়ক টিম পেইন ২০১৭ সালে বিশ্ব একাদশের হয়ে একটি টি-টোয়েন্টি খেলতে পাকিস্তানে গিয়েছিল।