অর্ধ যুগেও হয়নি ডুমুরিয়া বাজার কমিটি : ব্যবসায়ীদের ক্ষোভ

0
434

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি:
ডুমুরিয়ায় বারআনি বাজারে নির্বাচিত কমিটির মেয়াদ উত্তর্ণর পর প্রায় ৬ বছর কেটে গেলেও আজও নুতন কমিটি গঠিত হয়নি।সাবেক কমিটি দিয়েই চলছে বাজার পরিচালনার কায্যক্রম। এ নিয়ে গত ২০১৪ সালের ১৬ এপ্রিল নির্বাচনের মাধ্যমে নুতন কমিটি গঠনের দাবীতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের স্বরনাপন্ন হয়েছিল সাধারন ব্যবসায়ীরা। কিন্তু তাতে কোন প্রতিকার না পাওয়ায় ক্ষোভ দেখা দিয়েছে ব্যবসায়ীদের মধ্যে। আশু নির্বাচনের মাধ্যমে নুতন কমিটির দাবীতে আবারো গত বৃহস্পতিবার ৪১৬ জন ব্যবসায়ী স্বাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দপ্তরে দাখিল করা হয়েছে।
লিখিত অভিযোগ ও সাধারন ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে জানাযায় বারআনি বাজার কমিটি গঠনের লক্ষে ২০০৯ সালের ১১ মার্চ তিন বছর মেয়াদী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। যার মেয়াদ শেষ হয়েছে ২০১২ সালের ২১ মার্চ। কিন্ত মেয়াদ শেষের পর আজও পূনরায় নির্বাচন বা নুতন কোন কমিটি গঠিত হয়নি। এদিকে ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে নিয়মিত চাঁদা আদায় অব্যহত থাকলেও নেই সেবার মান। নিয়মিত বাজার ডিউটি না থাকায় প্রতিনিয়ত চুরি সংগঠিত অব্যহত রয়েছে। এ পর্যন্ত ২৮ বার বাজারে চুরি সংগঠিত হলেও আজ পর্যন্ত তার কোন হদিস মেলেনি। বার বার চুরি হওয়ায় সাধারন ব্যবসায়ীরা হতাশ হয়ে পড়ছে। বিগ্ন হচ্ছে বাজারের আ্ইন শৃঙ্খলা।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেক ব্যবসায়ী বলেন কি কারনে সাবেক কমিটি পূনরায় নির্বাচন না দিয়ে অনিদৃষ্ট কালের জন্য ক্ষমতা আকড়ে ধরে সাধারন ব্যবসায়ীদের ক্ষতিগ্রস্থ করছে জানিনা। এ থেকে প্রতিকার পেতে আমরা শত শত ব্যবসায়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের স্বরনাপন্ন হয়েছি। বাজার উন্নয়ন ও ব্যবসায়ীদের নিরাপত্তায় আশু নির্বাচনের মাধ্যমে নুতন কমিটির বিকল্প নেই। কেন মেয়াদ শেষের পরও ক্ষ্মতা আকড়ে ধরা হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে বাজার কমিটির সভাপতি ডাঃ গৌর কিশোর রায় বলেন শিগ্রই একটি মিটিং ডেকে কমিটি ভেঙ্গে দেয়া হবে এবং নুতন কমিটি গঠনের প্রকৃয়া সম্পন্ন করা হবে। এ প্রসংগে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্ম আশেক হাসান বলেন অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত শেষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।#