অবশেষে দল পেলেন গেইল

0
694

খেলা ডেস্ক, খুলনা টাইমস:

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) টুয়েন্টি টুয়েন্টি ক্রিকেটের এগারতম আসরের নিলামের দ্বিতীয় দিন বিক্রি হলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের মারকুটে ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল। ভিত্তিমূল্য ২ কোটি রুপিতেই তাকে ক্রয় করেছে কিংস একাদশ পাঞ্জাব। দ্বিতীয় ও শেষ দিন আইপিএলের নিলামে ছিলো আরো বড় চমক। নেপালের প্রথম কোন খেলোয়াড় হিসেবে আইপিএলের নিলামে বিক্রি হলেন সন্দ্বীপ লামিচান। ভিত্তিমূল্য ২০ লাখ রুপিতে লামিচানকে দলে নেয় দিল্লি ডেয়ারডেভিলস।
সহযোগি দেশের মধ্যে শুধুমাত্র কানাডা থেকে তারিক হামজা ও নেপালের লামিচান আইপিএলের নিলামে উঠেছিলেন। এরমধ্যে বিক্রি হলেন লামিচান। ২০১৬ সালে অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ১৪ উইকেট শিকার করেন তিনি। টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী ছিলেন লামিচান।
আফিফের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে প্লে-অফে ইংল্যান্ডকে হারালো বাংলাদেশ
আফিফ হোসেনের অলরাউন্ডার নৈপুণ্যে আইসিসি অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের পঞ্চমস্থান নির্ধারণী ম্যাচের প্লে-অফে ইংল্যান্ডকে ৫ উইকেটে হারাল বাংলাদেশের যুবারা। আগামী ৩১ জানুয়ারি পঞ্চমস্থান নির্ধারণী ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।
কুইন্সটাউনে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং বেছে নেয় বাংলাদেশ। শুরুটা ভালো করতে পারেনি ইংল্যান্ড। দলীয় ১৭ রানে প্রথম উইকেট হারায় তারা। এরপর দ্বিতীয় উইকেটে ১২৬ রানের বড় জুটি গড়েন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হ্যারি বরুক ও ওপেনার লিয়াম ব্যাঙ্কস। দু’জনের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ১ উইকেটে ১৪৩ রান তুলে বড় স্কোর গড়ার পথ তৈরি করে ফেলে ইংল্যান্ড।
কিন্তু এরপরই বল হাতে জ্বলে উঠেন বাংলাদেশের বোলাররা। তাতে ৭৬ রানের ব্যবধানে শেষ ৯ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। ফলে ২১৬ রানেই গুটিয়ে যায় ইংলিশরা। আফিফ ও হাসান মাহমুদের ৩টি করে এবং কাজি অনিক ২টি উইকেট নেন।
জবাবে শুরু থেকে শক্তভাবে জবাব দেয়া চেষ্টা করে বাংলাদেশ। কিন্তু বড় কোন জুটি গড়তে পারেনি তারা। তারপরও ছোট ছোট জুটির কল্যাণে ও আফিফের দায়িত্বশীল ৭১ রানের সুবাদে ১৫ বল বাকী রেখেই জয়ের স্বাদ পায় বাংলাদেশ। আফিফ ছাড়াও দলের জয়ে অবদান রেখেছেন অধিনায়ক সাইফ হাসান। ওপেনার হিসেবে নেমে ৫৯ রান করেন সাইফ।
গ্রুপ পর্বে একে অপরের মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ ও ইংল্যান্ড। কারণ একই গ্রুপে ছিলো এই দু’দল। ওই ম্যাচে ৭ উইকেটে হেরেছিল বাংলাদেশ। ওই হারে কোনো ক্ষতি হয়নি তাদের। নামিবিয়া ও কানাডাকে হারিয়ে কোয়ার্টারফাইনাল নিশ্চিত করে ফেলেছিল বাংলাদেশের যুবারা।
ইন্টারনেট।