অবশেষে চলে গেল মুক্তামনি

0
395

অনলাইন ডেস্কঃ

বিরল রোগে আক্রান্ত সাতক্ষীরার ১০ বছরের শিশু মুক্তামনি অবশেষে মারা গেছে। বুধবার (২৩ মে) সকাল ৭টা ৫০ মিনিটি সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করে। বিষয়টি ব্রেকিংনিউজকে নিশ্চিত করেছেন সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. শামসুর রহমান।

তিনি জানান, মঙ্গলবার রাতে মুক্তামনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তার বাবা ইব্রাহিম হোসেন ঢামেকের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেনকে ফোন করেন। ডা. সামন্ত লাল সেনের পরামর্শে রাতেই মুক্তামনিকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে ডা. মো. হাফিজ উল্লার তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা চলছিল। সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে সে পানি খেতে চায়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পানি আর খেতে পারেনি। তার আগেই সে মারা যায়।

উল্লেখ্য, গত বছর বিভিন্ন গণমাধ্যমে মুক্তামনির বিরল রোগের খবর প্রকাশ হলে বিষয়টি নজরে আসে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের চিকিৎসকদের। এরপর গত বছরের ১২ জুলাই রক্তনালীর টিউমারে আক্রান্ত মুক্তামনিকে ঢামেকের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। এসময় বায়োপসি করে তার রক্তনালীতে টিউমার ধরা পরে।

তখন ঢামেকে তার চিকিৎসায় বিশেষ মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। তার উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে নেয়া উদ্যোগ নেয়া হয়। কিন্তু সিঙ্গাপুরের চিকিৎসকরা তার চিকিৎসা করতে অস্বীকৃতি জানান। এরপর ঢামেকের চিকিৎসকরাই তার অপারেশনের সিদ্ধান্ত নেন। এরপর মুক্তামনির হাতে একাধিক অপারেশন করা হয়। প্রায় ৫ মাস পর গত ২২ ডিসেম্বর মুক্তামনি নিজ বাড়িতে ফিরে। এরপর কিছুদিন মুক্তামনি ভালো থাকলেও তার অবস্থা আবারো খারাপের দিকে যায়।