সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় নিহত ৪০

0
50
Mourners cover the body of man, killed after a reported pro-regime bombardment, during his funeral in the village of Kafr Taal, in Aleppo's western countryside on January 21, 2020. - Russian air strikes killed at least 15 civilians in northwestern Syria, as renewed violence tightened the noose around the country's last major rebel-held bastion and deepened an already dire humanitarian crisis. Air strikes by regime-ally Russia on a rebel-held region in Aleppo's western countryside killed eight members of the same family sheltering in a house, said the Syrian Observatory for Human Rights. Six children were among those killed in the raid on Kfar Taal village, where three girls already died a day earlier in strikes, according to the Britain-based monitor. (Photo by Aaref WATAD / AFP)

খুলনাটাইমস বিদেশ : সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে মার্কিন নেতৃত্বাধীন বিমান হামলায় অন্তত ৪০ জন নিহত হয়েছেন। ইরাক সীমান্ত বরাবর হিজান শহরের কাছে এই হামলায় নিহতদের অধিকাংশই নারী ও শিশু। ব্রিটিশ গণমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্টের খবরে এমন তথ্য জানা গেছে। তবে হামলার বিষয়ে মার্কিন জোটের এখনও পর্যন্ত কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। ব্রিটেনভিত্তিক সিরীয় অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটসের প্রধান রামি আবদুর রহমান বলেন, শনিবার সকালে এই হামলা হয়েছে। আবু আল-হাসান গ্রামের বাড়িঘরে হামলা করলে এই প্রাণহানি ঘটে। তিনি বলেন, বিমান হামলায় ৪৩ জন নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১৭টি শিশু ও ১২ নারী রয়েছেন। তবে হামলায় নিহত পুরুষরা জঙ্গি কিনা, তা তাৎক্ষণিকভাবে পরিষ্কার হওয়া যায়নি। সিরীয় রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সানার খবরে জানা গেছে, আবুল হাসানের কাছে দুর্গম অঞ্চল বুখানে বিমান হামলায় ৪০ জন নিহত হয়েছেন। চিকিৎসা কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে আইএস-সংশ্লিষ্ট সংবাদ সংস্থা আমাকও ৪০ জন নিহত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে। ইউরোপ থেকে দিইর এল-জোহরে যুদ্ধ পর্যবেক্ষণকারী ওমর আবদু লেইলা বিমান হামলার ঘটনা নিশ্চিত করেছেন। তবে তিনি বলেন, মৃতের সংখ্যা নির্ণয় করা খুবই কঠিন। গত সেপ্টেম্বরের শুরু থেকে কুর্দিশ নেতৃত্বাধীন সিরীয় ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেস ও মার্কিন জোট ওই অঞ্চলটিতে আইএসের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে। গত ১০ সেপ্টেম্বর থেকে হামলায় অন্তত ১৯১ জন বে-সামরিক লোক নিহত হয়েছেন। যাদের মধ্যে ৬৫টি শিশু ও ৪৫ নারী রয়েছেন।