শিখর ধাওয়ানের প্রেমকাহিনি বলিউডের গল্পকেও হার মানাবে!

0
183
ফাইল ছবি

ব্যাট হাতে ভারতকে অনেক কঠিন ম্যাচ জিতিয়েছেন শিখর ধাওয়ান। তার পারফরম্যান্সে রোমাঞ্চিত-শিহরিত হয়েছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। কিন্তু জানেন কী, জীবনসঙ্গী আয়েশা মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে বাঁহাতি এ ওপেনারের পার্টনারশিপ এর চেয়েও অনেক বেশি শিহরণ জাগানিয়া। বলিউড রোমান্টিক যে কোনো সিনেমার গল্পকেও তা হার মানাবে।
অ্যাংলো-ইন্ডিয়ান কিক বক্সার আয়েশার বাবা ছিলেন বাঙালি। মা ছিলেন ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত। ঘটনাক্রমে গোটা পরিবার অস্ট্রেলিয়ায় বসত গাড়েন। সেখানে এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে আয়েশার বিয়ে হয়। পরে সেই বিয়ে ভেঙেও যায়। কিন্তু ততদিনে ২ কন্যাসন্তানের মা হয়ে যান তিনি।

ভারতীয় অফস্পিনার হরভজন সিংয়ের ফেসবুক ফ্রেন্ড ছিলেন আয়েশা। সেই সূত্রে তার ছবি দেখেন ধাওয়ান। প্রথম দেখাতেই আয়েশার রূপে পাগল হয়ে যান টিম ইন্ডিয়ার ওপেনার। সঙ্গে সঙ্গে তাকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠান তিনি। সেই থেকে দুজনের বন্ধুত্ব শুরু হয়।

১০ বছরের বড় আয়েশার সঙ্গে ধাওয়ানের সম্পর্ক পূর্ণতা পায় ২০০৯ সালে। তবে তাদের সম্পর্ক মেনে নিতে রাজি ছিল না পরিবার। কেবল সম্মত ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের ‘গব্বর সিং’ ধাওয়ানের মা। এ লড়াইয়ে ছেলের পাশে দাড়ান তিনি।

ফাইল ছবি

ওই বছরই শিখর ও আয়েশার বাগদান সম্পন্ন হয়। তবে ক্রিকেটার হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করার পরই আয়েশাকে বিয়ে করবেন বলে মনোস্থির করেন ধাওয়ান। ২০১২ সালে পাঞ্জাবি মতে, বিয়ে করেন তারা। ২০১৪ সালে তাদের এক পুত্রসন্তানও হয়।

২ কন্যা ও ১ পুত্র নিয়ে এখন আয়েশা-ধাওয়ানের সংসার। দুই কন্যা রেহা ও আলিয়া থাকে অস্ট্রেলিয়ায়। পুত্র জহোরারকে নিয়ে ভারতে থাকেন এ সেলিব্রেটি দম্পতি। সন্তানদের দেখাশোনায় দুই দেশেই অবাধ যাতায়াত ধাওয়ানপতœীর।

তথ্যসূত্র: ক্রিকেট টাইমস/ওয়ান ইন্ডিয়া